Home গল্প তোমাদের গল্প আদিলের স্কুলে যাওয়া -মেহেরুন ইসলাম

আদিলের স্কুলে যাওয়া -মেহেরুন ইসলাম

আজ সকাল থেকে একটা ভাড়াও পায়নি আদিল। তার মনটা খুব খারাপ। কত মানুষ রিকশায় চড়ছে। কিন্তু তার রিকশায় কেউ উঠছে না।
কিছুক্ষণ পরে হঠাৎ ‘এই খালি যাবে’ এমন বাক্য শুনে পিছনে তাকায় সে। দেখে এক ম্যাডাম। আদিলের চোখেমুখে উচ্ছ্বাসের ঢেউ। ম্যাডাম আমাকে ডাকছেন?
হ্যাঁ, শাহবাগ যাবে?
যামু ম্যাডাম।
আদিল খুশি মনে রিকশা চালাচ্ছে। গুলিস্তান আসতেই জ্যামে আটকে গেল।
ম্যাডাম এ জ্যাম ছাড়াইতে বহুত সময় লাগবো, আপনের অফিসেতো দেরি হইয়া যাইবো।
না, আমার অফিস নেই।
তোমার নাম কি?
আদিল আমার নাম।
খুব সুন্দর নামতো। তুমি স্কুলে যাও না?
না, ম্যাডাম। খাওন জোটে না, ক্যামনে স্কুলে যামু কন?
কেন তোমার বাবা নেই?
আছে ম্যাডাম, পঙ্গু। কাম করতে পারে না। মা মাইনসের বাসায় কাম করে। তা দিয়ে সংসার চলে না।
তোমরা কই ভাইবোন?
দুই বোন ও এক ভাই।
আদিলের জীবনকাহিনি শুনে রিশিতার খুব খারাপ লাগলো। আদিলের জন্য তার কিছু করতেই হবে। কিন্তু সে নিজেই স্টুডেন্ট। বাপ-ভাইয়ের টাকায় নার্সিং পড়ছে। প্রাইভেটে নার্সিং পড়া খুব ব্যয়বহুল। সে ভাবছে কী করা যায়।
আদিলের ডাকে ভাবনার ঘোর কাটে তার।
ম্যাডাম আমার কথা শুইনা দুঃখ পাইলেন?
আমাগোর জীবনডাই এমন!
ইশ! কতটুকু একটু বাচ্চা ছেলে রিকশা চালায়। অথচ ওর এখন স্কুলে যাওয়ার কথা। আনন্দ উচ্ছ্বাসে দিন কাটানোর কথা। কিন্তু সে এখন পেটের দায়ে সংসার সামলাতে রিকশা চালায়।
ম্যাডাম শাহবাগ আইসা পড়ছি, নামেন।
রিশিতা চমকে উঠলো, সে আদিলের ভাবনায় বিভোর ছিল।
টাকাটা নাও।
ম্যাডাম এত টাকা কেন? ভাড়াতো এত না?
আমি তোমাকে দিলাম, তুমি রাখো।
না, ম্যাডাম। মায়ে রাগ করবো, কারো টাকা নিতে মানা করছে আমারে।
তোমার মাকে বলবে তোমার এক বড়ো বোন দিয়েছে।
আজ থেকে তোমার তিনবোন। বুঝলে?
আইচ্ছা ম্যাডাম।
শোনো আমাকে ম্যাডাম নয় আপু ডাকবে। আর কাল সকাল দশটায় এখানে চলে আসবে। আমি তোমার জন্য অপেক্ষা করবো।
আইচ্ছা আপা, ঠিক আছে।
রিশিতা সারারাত আদিলকে নিয়ে ভাবলো। আদিলকে তার স্কুলে ভর্তি করাতেই হবে। অবশেষে তার হাত খরচ থেকে বাঁচানো টাকাগুলোই আদিলের জন্য বরাদ্দ করলো।
দশটা বাজার আগেই আদিল শাহবাগে হাজির। কিছুক্ষণ পরে রিশিতাও এলো।
আমার আগেই চলে আসছো, তুমিতো বেশ পাংচুয়াল।
আপা কেন ডাকছেন আমারে?
তোমাকে আমি স্কুলে ভর্তি করাবো। কী যাবে না?
না আপা, আমি স্কুলে যামু না।
কেন যাবে না?
স্কুলে গেলে সংসার ক্যামনে চলবো? আব্বার ওষুধ, রিনি, মিনির খাওন ক্যামনে জোগাড় করমু?
বোকা ছেলে, তুমিতো জানোই না। ঢাকায় নৈশ বিদ্যালয় আছে, যেখানে রাতের বেলা ক্লাস হয়। যারা তোমার মতো দিনে সুযোগ পায় না। তারাই ওখানে পড়ে। এবার যাবেতো।
কিন্তু আপা,
আর কোনো কিন্তু নেই। স্কুলের খরচ নিয়ে ভাবছো তাইতো?
হ, আপা।
তোমার স্কুলের খরচ আমি দেবো। আর কোনো কিন্তু নেই ওকে।
আইচ্ছা আপা।
চলো এবার আমরা স্কুলে যাই।

SHARE

Leave a Reply