Home ছড়া-কবিতা শরতের সরোদ -ফারুক হোসেন

শরতের সরোদ -ফারুক হোসেন

আকাশ কিছুটা স্বচ্ছ কিছুটা ফর্সা আলোকময়,
যেখানে কৃষ্ণ মেঘেরা শ্রাবণে মুখ কালো করে রয়,
আস্তে আস্তে সেখানে শুভ্র, মেঘেদের হলো জয়,
যখন তখন আর নেই সেই বিষ্টি হবার ভয়,

বর্ষাকে ফেলে পেছনে এসেছে শরতের মহাশয়।

আকাশটা আজ ঘন নীল ঢাকা সাথে শাদা আভরণ,
আগে ছিলো মেঘ পাহাড় এবড়ো থেবড়ো সারাক্ষণ,
রংধনু সাত রঙা সুতো দূর দিগন্তে আবাহন,
বিকেলের গায়ে আকাশের নিচে আলোর বিচ্ছুরণ,

শরতের ঘ্রাণ মাখা মোহনীয় স্বপ্নরা অগণন।

পানি নেমে গেছে জেগেছে শুকনো মাটি নদীটির পাড়,
ছোট ছোট গাছ ঘাসেরা এবার তুলেছে উপরে ঘাড়,
স্যাঁতস্যাঁতে পেয়ে পোকা মাকড়েরা দুষ্ট বেড়েছে বাড়,
গর্তে বন্দী ঘোলা পানি যেনো ফেলানো ভাতের মাড়,

ঝাঁজালো রোদের কাছে ওইসব সকলই মেনেছে হার।

প্রজাপতি উড়ে উড়ে বেড়াবার এখনই জেগেছে শখ,
নদী তীরে আর ভেসে ওঠা চরে আসর পেতেছে বক,
জলে ডোবা গাছপালার কাণ্ডে ফ্যাকাসে হয়েছে ত্বক,
কিছু কিছু ফুল, কিছু কিছু ঘাস মাটিতে পেতেছে ছক,

নদীপথ ছেড়ে নৌকো চালাতে মাল্লারা অপারগ।

আশপাশ ফুল, শাদা কাশ ফুল, করে দুল দুল আর,
আরো যত ফুল শিউলি শেফালি গোছাচ্ছে সংসার,
তবে বোঁটা খুব ঠুনকো এখন কোনমতে দিন পার,
ডালে ডালে ঝুলে থেকে মনে হয় নিজেকে ভীষণ ভার,

হেমন্ত যেনো সামনে, সময়, স্বাগতম জানাবার।

SHARE

Leave a Reply