Home আইটি কর্নার গুগল ফ্যামিলি লিংক শিশুদের নিয়ন্ত্রিত অনলাইন ব্যবস্থাপনা জামশেদ ইকবাল

গুগল ফ্যামিলি লিংক শিশুদের নিয়ন্ত্রিত অনলাইন ব্যবস্থাপনা জামশেদ ইকবাল

বিশ্ব এখন অনলাইনে- এ কথা জোর দিয়েই বলা যায়। অনলাইনের ব্যবহার ছাড়া আমাদের দৈনন্দিন জীবন প্রায় অচল। শিশু থেকে বৃদ্ধ সবাই এখন অনলাইন দুনিয়ার বাসিন্দা। বিশেষ করে তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে শিশুরা জন্মের পর থেকেই প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হচ্ছে। কিন্তু শিশুরা অনেক সময় অতিরিক্ত মোবাইল ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হয়। তবে এবার হয়তো অভিভাবকরা কিছুটা নিশ্চিন্ত হতে পারবেন। কারণ সম্প্রতি এক ফিচার নিয়ে হাজির হয়েছে গুগল প্লে স্টোর। এই ফিচারের মাধ্যমে ফোনের কাছে না থেকেও দূর থেকে শিশুদের স্মার্টফোন লক করে দিতে পারবেন অভিভাবকরা। গুগল ফ্যামিলি লিংক নামে ফিচারটির মাধ্যমে এখন শিশুদের মোবাইলে ডাটা লিমিট, লক হওয়ার সময়, অ্যাপ ব্লক বা অ্যাপ্রুভ সব করা যাবে দূর থেকে।

আপনার শিশু গুগল ফ্যামিলি লিংকের মাধ্যমে গুগল প্লে স্টোর থেকে কোন কোন অ্যাপ ডাউনলোড করছে তাও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। ১৩ বছরের নিচের শিশুদের মোবাইলে গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ করা যাবে গুগল ফ্যামিলি লিংকের মাধ্যমে। ১৩ বছরের বেশি বয়সের কিশোরদের ক্ষেত্রে গুগল ফ্যামিলি লিংক ব্যবহার করলে ওই কিশোরের অনুমতি প্রয়োজন হবে। অভিভাবক ও শিশুর মোবাইলকে একে অপরের সঙ্গে লিংক করাতে হবে এবং দুজনকেই একটি পাসওয়ার্ড দেওয়া হবে। ওই পাসওয়ার্ড দিয়েই মোবাইল নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। পাসওয়ার্ড বদলালেই নোটিফিকেশন যাবে অভিভাবকের কাছে।

Google-এর Family Link অ্যাপের সাহায্যে অভিভাবকরা বাচ্চা বা ১৩-১৯ বছর বয়সীরা অহফৎড়রফ ডিভাইসে কী করছে তার ওপর নজর রাখতে এবং পরিবার ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম কীভাবে ব্যবহার করবে তার জন্য নির্দিষ্ট নিয়মাবলি সেট করতে পারবেন। প্রথমত, বাচ্চা/১৩-১৯ বছরের বয়সীদের জন্য Family Link কাজ করে এমন একটি ডিভাইসের প্রয়োজন। যেসব অহফৎড়রফ ডিভাইস ৭.০ (Nougat) বা উচ্চতর ভার্সনে চলছে, সেগুলোতে Family Link ব্যবহার করা যায়। যে Android ডিভাইসগুলো ৫.০ এবং ৬.০ (Lollipop এবং Marshmallow) ভার্সনে চলছে, সেগুলোতেও Family Link চলতে পারে। তারপর, অভিভাবকরা তাদের নিজেদের ডিভাইসে (Android এবং iPhone) ডাউনলোড করার মাধ্যমে শুরু করতে পারেন। যদি কোনও বাচ্চার ১৩-১৯ বছরের আগে থেকেই অ্যাকাউন্ট থাকে তাহলে অভিভাবকদের অ্যাকাউন্টের সাথে তাদের সন্তানের অ্যাকাউন্ট লিঙ্ক করলেই তা কাজ করা শুরু করবে। এই প্রসেসের অংশ হিসেবে, অ্যাকাউন্ট লিঙ্ক করার প্রসেসটি সম্পূর্ণ করার জন্য বাচ্চা/১৩-১৯ বছরের বয়সীকেও তাদের ফোনে Family Link (শিশু/কিশোর-কিশোরী) অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। অভিভাবকরাও তাদের ১৩ বছরের কম বয়সী সন্তানের জন্য Google অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারেন। সম্পূর্ণ হলে, বাচ্চারা নতুন অ্যাকাউন্ট দিয়ে তাদের ডিভাইসে সাইন-ইন করতে পারে। অ্যাকাউন্ট লিঙ্ক করা হয়ে গেলে, অভিভাবকরা Family Link ব্যবহার করে সহজেই স্ক্রিন টাইমে নজর রাখা এবং তাদের ব্যবহার করা কন্টেন্ট ম্যানেজ করার মতো কাজ করতে পারবেন। সব মিলিয়ে বাচ্চাদের অনলাইন দুনিয়া সাজিয়ে দিতে গুগল ফ্যামিলি লিংক-এর ব্যবস্থাপনা সহজ এবং সুন্দর।

SHARE

Leave a Reply