Home হাসির বাকসো হাসির বাকসো

হাসির বাকসো

দুই ভাই বই পড়ছে, হঠাৎ মায়ের আগমন-
মা : কিরে, তোরা বই পড়ছিস নাকি গল্প করছিস?
প্রথম ভাই : মা আমি সব উত্তর মুখস্থ করে ফেলেছি।
দ্বিতীয় ভাই : আমি সব প্রশ্ন মুখস্থ করে ফেলেছি।
মা: প্রশ্ন কেন? প্রশ্ন মুখস্থ করে কী হবে?
দ্বিতীয় ভাই : দেখলাম ভাইয়া উত্তর মুখস্থ করছে, তাই আমি প্রশ্নগুলা মুখস্থ করে ফেললাম।
রাদিয়াত ইসলাম
ডোমার, নীলফামারী।

দুই বন্ধুর মধ্যে কথোপকথন-
প্রথম বন্ধু : বলতো চীনের জনসংখ্যা এতো বেশি কেন?
দ্বিতীয় বন্ধু : দোস্ত চীনের জনসংখ্যা বেশি নয়, বরং তারা সবাই একই রকম দেখতে বলে গণনার সময় ওরা একই লোককে তিন চারবার গুণে ফেলে। তাই, চীনের জনসংখ্যা বেশি মনে হয়।
মিরাজ হোসেন
রায়পুর, লক্ষ্মীপুর।

টিফিন টাইম ক্লাসে যে যার মতো গল্প করছে, এমন সময় জামাল দৌড়ে এসে হতাশার সাথে-
জামাল : আকাশ পড়ে গেছে! আকাশ পড়ে গেছে!
সবাই : (প্রচণ্ড ভয়ে) দরজা লাগিয়ে দাও! বেঞ্চের নিচে লুকাও!
জামাল : আরে আমাদের বন্ধু আকাশ পড়ে গেছে।
মো: ইয়াছিন আরাফাত
ডিমলা, নীলফামারী।

শিক্ষক ও ছাত্রের মধ্যে কথোপকথন-
শিক্ষক : বলতো শীতকালে অতিথি পাখিরা এদেশে উড়ে আসে কেন?
ছাত্র : স্যার এতো দূরে হেঁটে আসা সম্ভব না তাই উড়ে আসে।
মিরাজ হোসেন
রায়পুর, লক্ষ্মীপুর।

দুই বন্ধুর মধ্যে কথা হচ্ছে-
১ম বন্ধু : দোস্ত, তোমার আর আমার মধ্যে কার উপস্থিত বুদ্ধি বেশি?
২য় বন্ধু :অবশ্যই আমার বেশি।
১ম বন্ধু : তাহলে একটি প্রশ্ন করি।
২য় বন্ধু : আচ্ছা কর।
১ম বন্ধু : একটি ছাতার নিচে ১০ জন মানুষ আছে তাহলে কয়জন বৃষ্টির পানিতে ভিজবে?
২য় বন্ধু : হুম…৫-৬ জন এমনিতেই ভিজবে।
১ম বন্ধু : একজনও ভিজবে না।
২য় বন্ধু : কিভাবে?
১ম বন্ধু : আমি কি বলেছি যে বৃষ্টি হচ্ছে।
রেদওয়ান আহমদ
ইটাউরি, বড়লেখা।

SHARE

Leave a Reply