Home হাসির বাকসো হাসির বাকসো

হাসির বাকসো

দোকানদার ও ভদ্রলোকের মধ্যে আলাপন-
ভদ্রলোক : ভাই আপনার দোকানের নাম কী?
দোকানদার : আপনার কী দরকার?
ভদ্রলোক : এমনিতেই বলুন না!
দোকানদার : আপনার কী দরকার!
ভদ্রলোক : রেগে গিয়ে বলেন, আপনি একটা ফালতু মানুষ।
দোকানদার : কেন? আমার দোকানের নামই তো ‘আপনার কী দরকার স্টোর’।
ইমতিয়াজ আহমেদ (রামিম)
নোয়াখালী জিলা স্কুল, মাইজদী

ডাক্তার রোগীকে ব্যবস্থাপত্র দিয়ে বললেন-
ডাক্তার : আপনার খাবার সব সময় ঢাকা রাখবেন।
রোগী : কেন? ঢাকা তো অনেক দূর! কুমিল্লায় রাখলে চলবে না?
আব্দুর রহমান মাজিদ
কান্দির পাড় কুমিল্লা

সারাদিন ঘোরাঘুরি করার পর তিন পাগলের মধ্যে কথোপকথন-
১ম পাগল : জানিস আজক্যা হাতিরপুলে একখান ১০০ টাকার নোট পাইছিলাম।
২য় পাগল : কিন্তু তুই টাকাটা কী করলি?
১ম পাগল : টাকাটা জালনোট ছিল তাই হাতিরপুল ডাস্টবিনে ফ্যালায় দিছি।
৩য় পাগল : কিন্তু তুই কী করে বুঝলি যে টাকাটা জালনোট ছিল?
১ম পাগল : তুই কি কখনো দেখেছিস ১০০ টাকায় ১ এর পরে তিনটা শূন্য (০০০) থাকতে?
মোঃ খাইরুজ্জামান (মাহবুব)
কালিগঞ্জ, সাতক্ষীরা

এক রোগী গেলো ডাক্তারের কাছে-
রোগী : ডাক্তার সাহেব আমি একটি টুথব্রাশ কত দিন ব্যবহার করব?
ডাক্তার : এটা নির্ভর করবে আপনি কোথায় বাস করছেন, যদি আপনি আমেরিকায় বসবাস করেন তাহলে এক মাস, যদি ইংল্যান্ডে থাকেন তাহলে দেড় মাস, আর যদি বাংলাদেশে বসবাস করেন তাহলে প্রথমে দাঁত মাজা পরে চিরুনি পরিষ্কার, তারপর চুলে কলপ দেওয়া ইত্যাদি।
সাদীদ মুহাম্মাদ মিবযাল
মুহাম্মদপুর, সদর, সুনামগঞ্জ

জেলখানায় পাহারাদার পদে চাকরির জন্য এক প্রার্থী ইন্টারভিউ দিতে এসেছেন। জেলার তার ইন্টারভিউ নিচ্ছেন-
জেলার : জেলখানায় যেসব আসামি থাকে, তাদের অধিকাংশই বেয়াড়া প্রকৃতির। প্রায়ই এরা হুলস্থূল কাণ্ড ঘটায়।
প্রার্থী : সেটা তো আমি জানিই স্যার।
জেলার : তুমি তাদের কন্ট্রোল করতে পারবে তো?
প্রার্থী : কী যে বলেন স্যার, পারব না মানে! বেশি তেড়িবেড়ি করলে সবকটাকে ঘাড় ধরে বের করে দেবো।
নাহিদ হোসেন নিরব, ঢাকা

SHARE

Leave a Reply