Home নিয়মিত খোলা-ডাক খোলা-ডাক

খোলা-ডাক

আত্মবিশ্বাস অর্জনের মাধ্যম
সফলতা অর্জনের একটি মাধ্যম হলো আত্মবিশ্বাস। আত্মবিশ্বাস হলো নিজের প্রতি বিশ্বাস। নিজের প্রতি আস্থা অর্জনের একটি মাধ্যম প্রয়োজন হয়, আর আমার সে মাধ্যম হলো ‘কিশোরকণ্ঠ’। কিশোরকণ্ঠের মাধ্যমে আমি নিজের সম্পর্কে জানতে সক্ষম হই। আমি কিছু লেখার জন্য চেষ্টা করি, আমি অনেক গল্প, হাসির বাকসো লিখেছি। কিশোরকণ্ঠের মাধ্যমে আমি প্রতিভা প্রকাশ করতে পেরেছি। ধন্যবাদ জানাই কিশোরকণ্ঠ পরিবারকে।
মোঃ আব্দুল বাসিত
বড়দেশ, কানাইঘাট, সিলেট

আমার প্রকৃত বন্ধু
আমার জীবনে কিশোরকণ্ঠের আবির্ভাব ধূমকেতুর মতো হলেও এটি ছায়ার মতো আমার সাথে আছে। যখন নতুন কিশোরকণ্ঠ হাতে পাই, আহ! কী আনন্দই না লাগে তা প্রকাশ করতে অনন্ত মসি ও অক্লান্ত লেখকের আবশ্যক। কিশোরকণ্ঠ আমার প্রকৃত বন্ধু।
ইমাদ উদ্দিন
ফুলতলা, মৌলভীবাজার

প্রিয় কিশোরকণ্ঠ
আমি তোমার নতুন বন্ধু। অনেক আগে দু-একবার হাতে পেলেও পড়া হয়নি সেভাবে। ভাবতাম এইটুকু ম্যাগাজিনের আবার শেখার মতো কি-ইবা থাকবে! কিন্তু একদিন কী হলো, জানো? হঠাৎ কী মনে করে যেন পড়তে শুরু করলাম। ভালো লেগে গেল মুহূর্তেই। তাই ভাবছি এখন থেকে নিয়মিত পড়ব আর লেখার চেষ্টা করব। তুমি কিন্তু সবসময় আমাকে সাহায্য করবে, কেমন? শুভকামনা তোমার জন্য।
আবদুর রহমান
ঈশ্বরদী, পাবনা

সেরা উপহার
আমার প্রিয় বন্ধু মেহেদি হাসান। সে এখন মমতাজেন্নেছা মেমোরিয়াল উচ্চবিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীতে পড়ছে। সে একদিন আমাকে একটা মাসিক পত্রিকা এনে দেয়, আর বললো দোস্ত তোকে একটা সেরা বই উপহার দিলাম বাসায় গিয়ে পড়িস। আমি ভাবলাম ও মনে হয় মজা করছে এই ছোট বইটা আবার সেরা হয় কিভাবে। আমি বাসায় গিয়ে প্রথমে সূচিটা পড়লাম। আমার মন জুড়িয়ে গেল। তারপর আস্তে আস্তে পুরো বই পড়লাম- হাসির বাকসো, কুরআনের আলো, হাদিসের আলো, সায়েন্স ফিকেশন প্রত্যেকটা বিভাগই ছিল অসাধারণ। পরদিন আমার বন্ধুকে বললাম সত্যি এটা আমার জীবনের ‘সেরা উপহার’।
মেহেদি হাসান (সেবাজ)
রায়পুর, লক্ষ্মীপুর

জ্ঞানের আলো আমার আলো
কিশোরকণ্ঠ পত্রিকা এমন একটি মজার পত্রিকা যা আমার জ্ঞানের আলো বাড়িয়ে দেয়। আমি প্রতি মাসে কিশোরকণ্ঠ পত্রিকা পেলেই সকল লেখাপড়া ও কর্মব্যস্ততার ফাঁকে কিছু সময় এই পত্রিকা পড়ি। ভালো জ্ঞানের আলো মানুষের অশান্ত মনে এনে দিতে পারে সুখ। অতএব, এই পত্রিকা আমাকে পরিবর্তন করে, জ্ঞানের আলোয় আলোকিত করতে পারে।
মো: মুজাহিদুল ইসলাম আযম
গোয়াইনঘাট, সিলেট

কিশোরদের প্রিয় পত্রিকা
আমি ২০১৫ সালের জুলাই মাস থেকে নতুন কিশোরকণ্ঠের সাথে যুক্ত। এর সাথে যুক্ত থেকে যেমনি নানা রকম জ্ঞান আহরণ করা যায়। এই কিশোরকণ্ঠের মধ্যে অনেক অনেক জ্ঞানের জিনিস পাওয়া যায়। তার সাথে কারো তুলনা হয় না। যখন আমার মন খারাপ হয়, তখন আমি কিশোরকণ্ঠ পড়ি। আনন্দে আমার মন ভরে ওঠে। আমি প্রায় সবসময় কিশোরকণ্ঠ পড়ি। আমি কিশোরকণ্ঠকে খুব ভালোবাসি।

আনন্দের উৎস
কিশোরকণ্ঠ মানেই আনন্দ। এই পত্রিকার প্রত্যেক পৃষ্ঠাতেই রয়ে গেছে সুন্দর সুন্দর মনোরম লেখা। আমি মনে করি, যে কিশোরকণ্ঠ একবার পড়বে সে কখনো ভুলতে পারবে না আনন্দ কী জিনিস। তাই আজ আমি মনে করি কিশোরকণ্ঠ আসলেই আনন্দের উৎস।
জাবির আহম্মেদ জিহাদ
দেওয়ানপাড়া, ইসলামপুর, জামালপুর

প্রিয় বন্ধু তোমায় ভালোবাসি
আমি কিশোরকণ্ঠের একজন পাগল পাঠক। কিশোরকণ্ঠ আমার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু। আমি নিয়মিত কিশোরকণ্ঠ পড়ি। আমার মন খারাপ থাকলে কিশোরকণ্ঠ পড়লে আমার মন ভালো হয়। কিশোরকণ্ঠ হলো আমার একাকিত্বের সঙ্গী। তাই কিশোরকণ্ঠের প্রতি আমার একটা আলাদা ভালোবাসা তৈরি হয়েছে। তাই কিশোরকণ্ঠকে আমার সবসময় বলতে ইচ্ছে হয়, ‘প্রিয় বন্ধু তোমায় ভালোবাসি।’
মো: আশরাফুল আলম
অনন্তপুর আদর্শ বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়

SHARE

Leave a Reply