Home চিত্র-বিচিত্র প্রজাপতির মেলা । নুসাইবা মুমতাহিন

প্রজাপতির মেলা । নুসাইবা মুমতাহিন

প্রজাপতি পৃথিবীর সবচেয়ে আশ্চর্যজনক এবং সুন্দর প্রাণী। প্রজাপতি সবচেয়ে নিরাপদ এবং সুন্দর পতঙ্গ। প্রজাপতি পছন্দ করে না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া অসম্ভব। বিশ্বে অনেক ধরনের সুন্দর সুন্দর প্রজাপতি রয়েছে। প্রজাপতি ডানার অসাধারণ রঙের কারুকার্য এটি অন্যান্য পতঙ্গ থেকে ভিন্ন করে। পৃথিবীতে অনেক ধরনের প্রজাপতি রয়েছে।

প্রজাপতির মেলাএকেরনশিয়া এট্রোপাস
এটি রাতের প্রজাপতি নামে পরিচিত। এই প্রজাপতির শরীরের ওপরের অংশটি নিচের দিক থেকে একেবারেই আলাদা। এই প্রজাপতির ডানা থেকে এক ধরনের সুন্দর গন্ধ বের হয়।

প্রজাপতির মেলামাচা সাইলফিশ
এটি বৃহত্তম এবং সবচেয়ে আকর্ষণীয় প্রজাপতি। পুরুষ প্রজাপতির ডানা কালো রঙের ওপর গাঢ় সবুজের খুব সুন্দর মিশ্রণ। এ ছাড়াও ডানাগুলো লাল রঙের এবং বাদামি বর্ণের হয়। এটি গ্রীষ্মমণ্ডলীয় দেশগুলোর বাসিন্দা। এদের উত্তর অক্ষাংশ এলাকায়ও পাওয়া যেতে পারে। এরা সাধারণত ঘন বনে বাস করে।

প্রজাপতির মেলামাদাগাস্কার ধূমকেতু
শুধু আর্দ্র গ্রীষ্মমণ্ডলীয় বনের মধ্যেই এই প্রজাপতিগুলো দেখা যায়। এই প্রজাপতিকে চাঁদের আলো বলা হয়। এই প্রজাপতির বৈশিষ্ট্যগুলোর মধ্যে রয়েছে একটি ছোট এবং টানা মাথা, পুরু এবং পুরুষের অস্বাভাবিক কৌশল ও ডানার রঙ। মাদাগাস্কারের এই বাসিন্দাটির রঙ খুব উজ্জ্বল। এর ডানাগুলো দেখতে অবিকল চোখের মতো। এদের ডানাগুলো খুব বড়। এদের দৈর্ঘ্য ১৮ সেন্টিমিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং অস্বাভাবিক দীর্ঘ স্পোরাস দ্বারা সজ্জিত। এই প্রজাপতিটি খেতে পারে না কারণ এদের মুখ ও পাচকতন্ত্র নেই। এদের দেহের ভেতরে যথেষ্ট পরিমাণে পুষ্টি রয়েছে। এরা মাত্র ২-৩ দিন বেঁচে থাকে।

প্রজাপতির মেলামরফোপ্লেড
এই প্রজাপতিটি কলম্বিয়া, মধ্য আমেরিকা এবং মেক্সিকোতে বাস করে। গ্রিক শব্দে ‘মরফো’ মানে ‘সুন্দর’। এই প্রজাপতি চমৎকার নীল রঙের। মনে হয় তারা পুরো আকাশের নীল রঙ শোষিত করে ধারণ করেছে। ডানাগুলো আলোর প্রতিফলন করে এবং এর নীল রঙগুলো প্রতিফলিত হয়, তাই মোর্ফা এর ডানা আমাদেরকে চকচকে এবং সুন্দর বলে মনে হয়। মরফো বিপরীত লিঙ্গের সৌন্দর্য দ্বারা আকৃষ্ট হয়। প্রজাপতিটির ডানা এদের রক্ষা করার একটি অনন্য উপায়। তারা প্রায় চার মাসের মত বেঁচে থাকে। বিভিন্ন ফলের রস এদের খাদ্য।

প্রজাপতির মেলাঅ্যাটলাস
অ্যাটলাস পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম প্রজাপতি। এদের ডানার দৈর্ঘ্য ২৬০ মিমি। অ্যাটলাস রাত পছন্দ করে। তাই এদের অন্য নাম ডার্কনেস প্রিন্স। এই আশ্চর্যজনক প্রজাপতির ডানাগুলি বক্ররেখা। সাপের মাথার মত। এরা বাদামি, লাল, হলুদ এবং গোলাপি রঙের হয়। এদের ডানার প্রান্তগুলিতে কালো রেখা থাকে। প্রতিটি ডানায় ময়ূরের পালকের মতো নকশা থাকে। এদের জীবনকাল ১-২ সপ্তাহ। আটলাস খুব বিস্ময়কর গন্ধযুক্ত একটি প্রজাপতি। পুরুষ অ্যাটলাস ১২ কিলোমিটার দূরে থাকলেও এদের গন্ধের জন্য নারী অ্যাটলাস এদের খুঁজে পেতে পারে।

প্রজাপতির মেলাসিপ্রোডিয়া স্টেলেনা
দক্ষিণ আমেরিকা ও মধ্য আমেরিকায় এই প্রজাপতি বেশি দেখা যায়। অনেক কম দেখা যায় উত্তর আমেরিকাতে। সিপ্রোডিয়া স্টেলেনা প্রজাপতির রয়েছে অস্বাভাবিক রঙ, যা তার প্রজাতির অন্যান্য পতঙ্গ থেকে ভিন্ন। এর কারণ এদের খাদ্য অনেক বেশি বৈচিত্র্যময়। এদের আকার সাধারণত আট থেকে দশ সেন্টিমিটার। এদের ডানাগুলি মখমল-কালো, মাঝে উজ্জ্বল সবুজ রঙের দাগ রয়েছে যা একটি বিচিত্র এবং সুন্দর প্যাটার্ন গঠন করে।

প্রজাপতির মেলাপ্যারাসাসিয়াস বেনজন্টনি
এটি বিশ্বের সর্বোচ্চ উচ্চতায় অবস্থিত প্রজাপতি। এরা সবগুলো প্রজাতিই প্রধানত হিমালয়গুলোতে বসবাস করে। এটি সমুদ্রের মাত্রা থেকেও ছয় হাজার মিটারেরও বেশি উচ্চতায় অবস্থান করে। এদের সৌন্দর্যও অদ্ভুতভাবে প্রকৃতির সাথে মিশে যায়। এদের ডানাগুলো তুষার-সাদা বর্ণের। মাঝে মাঝে উজ্জ্বল কমলা বা লাল রঙ দেখা যায়।

একেক ধরনের প্রজাপতির রঙ এক এক রকম। প্রজাপতির ডানার সৌন্দর্যের বিন্যাস দেখলে বোঝা যায় মহান রব কত নিপুণভাবে এদের সৃষ্টি করেছেন। মহান রব অত্যন্ত যত্নের সাথে প্রত্যেককে সৃষ্টি করেছেন। প্রতিটি সৃষ্টি বিস্ময়কর, চমৎকার সৌন্দর্যমণ্ডিত।

SHARE

Leave a Reply