Home নিয়মিত খোলা-ডাক খোলা ডাক

খোলা ডাক

অনন্য পত্রিকা
অন্যান্য পত্রিকার মধ্যে আমার কাছে কিশোরকণ্ঠ পত্রিকাটি অন্যতম। কেননা আমি মনে করি কেউ যদি কোনো অজানা তথ্যকে জানতে চায় তাকে অবশ্যই এই পত্রিকার সহযোগিতা নিতে হবে। কারণ মানুষ তার অজানা তথ্যকে খুঁজে বের করতে পারে এই পত্রিকার মাধ্যমে। সত্যিই কিশোরকণ্ঠ এক অনন্য পত্রিকা।
মো: মিজানুর রহমান, টঙ্গী, গাজীপুর

শৈশবের স্মৃতি
খুব ছোট্ট থেকে আমি কিশোরকণ্ঠের পাঠক। প্রতি মাসে কিশোরকণ্ঠের গল্প, উপন্যাস, হাসির বাকসো আর কার্টুন না দেখলে আমার ঘুমই আসত না। পুরনো সেই সংখ্যাগুলো খুব যতেœ রেখে দিয়েছি। মাঝে মাঝে সেই সব লেখাগুলো দেখি, আর আমি আবার কিশোর হয়ে যাই।
নিজাম উদ্দীন, হাজীপুর, নরসিংদী

বহুদিন পর
বহুদিন পর মনের মতো একটি পত্রিকা পেলাম যার বিবরণ হয়তো আমি দিতে পারবো না। তারপরও কয়েকটি বিবরণ দিচ্ছি। এই পত্রিকার ভেতরে অনেক ধরনের লেখা পাওয়া যায় যেমনÑ কুরআনের আলো, হাদিসের আলো, শব্দধাঁধা, খোলাডাক, হাসির বাকসো, নাটক-নাটিকা, ছড়া-কবিতা, স্মরণ, উপন্যাস, গল্প ও ফিচার ইত্যাদি।
অনেক কিছুই পাই এই পত্রিকায়, যা আগে কখনো জানতাম না যে কিশোরকণ্ঠ নামে একটি পত্রিকা আছে। আজ থেকে আমি একটি নতুন পত্রিকা পেয়েছি যার নাম কিশোরকণ্ঠ। এই পত্রিকা নিয়ে আমি আজ থেকে লিখবো। আজ থেকে এ কিশোরকণ্ঠই আমার একটি স্বপ্ন। এই স্বপ্ন নিয়েই হয়তো আমি এক সময় অনেক বড় হয়ে যাবো, তখনো আমার সাথে থাকবে শুধু কিশোরকণ্ঠ।
মো: তামিম হোসেন (জাহিদ)
জামিরালতা ফরাজী বাড়ি, ভোলা

স্বপ্নসাথী
আমি অনেক পত্রিকার গ্রাহক। কিন্তু কিশোরকণ্ঠের পাগল-পাঠক। মাসের শুরুতে যদি কিশোরকণ্ঠ না পাওয়া যায়, এই অপূর্ণতার বেদনা আমাকে কুরে কুরে খায়। কিশোরকণ্ঠের সাথে পথচলা ক্লাস থ্রি থেকে। এখন অনার্সে পড়েও কিশোরকণ্ঠের প্রতি আকর্ষণ একটুও কমেনি বরং বেড়েছে অনেকগুণ। সুস্থ সংস্কৃতির বিকাশ সাধন, খোলাফায়ে রাশেদার সোনালি সমাজ গঠন, সত্য, ন্যায় ও সুন্দরের পক্ষে কিশোরকণ্ঠ আলোকবর্তিকা ও নবজাগরণের অগ্রদূত। তাই কিশোরকণ্ঠ আমার কাছে এক আলোকবর্তিকা।
আবু তালেব, গোসাইরহাট, শরীয়তপুর
জ্ঞানের ভাণ্ডার
আমি কিশোরকণ্ঠকে তেমন কিছু মনে করতাম না। বলতাম যে, এটি সময় কাটানোর এক পত্রিকা। হঠাৎ আমার বন্ধু আমাকে বলছে, কাছে আয় কিশোরকণ্ঠ কী? সেটা বলছে। কাছে নিয়ে দেখি, কিশোরকণ্ঠে রয়েছে সায়েন্স ফিকশন, বলতে পারো, শব্দধাঁধা আরও অনেক কিছু। তারপর থেকে আমি কিশোরকণ্ঠ গ্রাহক হয়ে গেলাম। কিশোরকণ্ঠে জ্ঞানের আলো দেখে বললাম, এ তো সাধারণ পত্রিকা নয়, জ্ঞানের ভাণ্ডার নিশ্চয়ই!
মু. ইফতেহার উদ্দীন যায়েদ
বাঁশখালী, চট্টগ্রাম

অপ্রত্যাশিত পাওয়া
কিশোরকণ্ঠ যে আকর্ষণীয় পত্রিকা তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এর মাধ্যমে ছোটরা কতটুকু জ্ঞান অর্জন করছে সেটা কিশোরকণ্ঠের পাঠকরাই বলতে পারবেন। পত্রিকাটি আমাদের সুপ্ত প্রতিভা প্রকাশের অন্যতম মাধ্যম। কোনো দিনও প্রত্যাশা করিনি যে, আমার লেখা এমন একটি আদর্শ পত্রিকায় প্রকাশ করার সুযোগ পাবো। সত্যিই, এটি অনেক বড় একটি পাওয়া।
মরিয়ম জামিলা, তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়

আলোয় উদ্ভাসিত
কিশোরকণ্ঠ এক অমিয় সুধার নাম। কিশোরকণ্ঠের এ সুধা পান করে তৃষ্ণা মেটায় অসংখ্য কিশোর-কিশোরী। যে সুধা তাদের জ্ঞানের তপ্ত বালুচরকে করে আলোয় আলোকিত। যে আলোকধারায় জীবনকে করে তোলে উজ্জ্বল আলোকময়। আর তাদেরকে পরিণত করে তোলে আগামী দিনের সত্যিকার ভবিষ্যতের কাণ্ডারি হিসেবে। কিশোরকণ্ঠের জ্ঞানের আলোয় আমরা হয়ে উঠি অনন্য সাধারণ। কিশোরকণ্ঠের আলোকরশ্মিতে আজ আমরা উদ্ভাসিত।
এইচ এম মাহমুদুল হাসান
জয়াগ, সোনাইমুড়ি, নোয়াখালী

SHARE

1 COMMENT

Leave a Reply to নাদিরুজ্জামান মুকুল Cancel reply