Home কুরআন ও হাদিসের আলো কুরআনের আলো সবর ও সালাতের মাধ্যমে আল্লাহর সাহায্য কামনা

সবর ও সালাতের মাধ্যমে আল্লাহর সাহায্য কামনা

“সবর ও সালাতের মাধ্যমে আল্লাহর সাহায্য কামনা করো। নিঃসন্দেহে এটি বড়ই কঠিন কাজ। কিন্তু বিনয়ী লোকদের জন্য কঠিন নয়। যারা মনে করে যে, তাদেরকে তাদের পরওয়ারদিগারের সামনে দাঁড়াতে হবে এবং তাঁরই দিকে ফিরে যেতে হবে।”
(সূরা আল বাকারা, আয়াত ৪৫-৪৬)

সবর শব্দের আভিধানিক অর্থ হলো বাধা দেয়া, বিরত রাখা ও বেঁধে রাখা। এর ব্যবহারিক অর্থ হলো মজবুত ইচ্ছা, অবিচল সঙ্কল্প। সবর শব্দ দিয়ে বোঝায় প্রবৃত্তির আশা-আকাক্সক্ষাকে শৃঙ্খলাবদ্ধ করা। যার ফলে কোনো ব্যক্তি প্রবৃত্তির তাড়না ও বাইরের সমস্যাবলির মোকাবেলায় নিজের হৃদয় ও বিবেকের পছন্দনীয় পথে অনবরত এগিয়ে যেতে থাকে। সবরের বাংলা প্রতিশব্দ ‘ধৈর্য’। সালাতের প্রতিশব্দ ‘নামাজ’।
মানুষ যদি সৎ ও সঠিক পথে চলাকে কঠিন মনে করে ‘ধৈর্য’ ও ‘নামাজ’ তাদেরকে এ কঠিন অবস্থা থেকে মুক্তি দেবে। এ দু’টি কাজের মাধ্যমে শক্তি সঞ্চয় করলে কঠিন পথ পাড়ি দেয়া তার জন্য সহজ হয়ে যাবে।
যে ব্যক্তি আল্লাহর অনুগত নয় এবং আখেরাতে বিশ্বাস করে না, তার জন্য নিয়মিত নামাজ পড়া কষ্টকর ব্যাপার। এ ধরনের কষ্টের কাজে সে কখনো নিজেকে জড়াতে চায় না। কিন্তু যে ব্যক্তি নিজের ইচ্ছায় এবং আনন্দের সাথে আল্লাহর আনুগত্য স্বীকার করেছে এবং মৃত্যুর পর তার মহান প্রভুর সামনে হাজির হওয়ার কথা চিন্তা করে, তার জন্য নামাজ পড়া কঠিন কাজ নয়, বরং নামাজ ত্যাগ করাই কঠিন।
আমাদের প্রিয়নবী (সা) যখন কোনো কঠিন সমস্যার সম্মুখীন হতেন, তিনি তখন নামাজে দাঁড়াতেন। এসো, আমরাও রাসূলের (সা) পূর্ণ অনুসরণ করি এবং জান্নাতে নিজেদের জায়গা করে নিই।
গ্রন্থনা : মিজানুর রহমান

SHARE

Leave a Reply