Home নিয়মিত স্কুল আঙিনা কাতার প্রবাসী বাংলাদেশী কৃতীদের সংবর্ধনা

কাতার প্রবাসী বাংলাদেশী কৃতীদের সংবর্ধনা

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এ প্লাস প্রাপ্ত কাতার প্রবাসী বাংলাদেশী কৃতী ছাত্রছাত্রীদের সংবর্ধনা দিয়েছে কাতারস্থ বাংলাদেশ কমিউনিটির একমাত্র কিশোর সংগঠন “কিশোরকণ্ঠ পাঠক ফোরাম”। দোহা সিটির অভিজাত রেস্টুরেন্ট আসিয়ানার বলরুমে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কাতার ইনভেস্টমেন্ট অথরিটির সম্মানিত কাউন্সিলর জনাব ওহিদুল ইসলাম। ফোরামের কাতার উইং-এর পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার কামারুল আহসান মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত কৃতী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল ও কলেজের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য জনাব মুহম্মদ রশীদ চৌধুরী। কাতারের বাংলাদেশ কমিউনিটির বিশিষ্ট জন, কৃতী ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক, শিক্ষক, পেশাজীবিসহ বরেণ্য ব্যক্তিবর্গ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ স্কুলসহ বিভিন্ন স্কুল থেকে ২০১২ সালে জিপিএ-৫ এবং সিজিপিএ-১০ প্রাপ্ত বাংলাদেশী ছাত্রছাত্রীদের সংবর্ধনা দেয়া হয়। সঙ্গীত, কৃতীদের অনুভূতি, অভিভাবক ও আমন্ত্রিত অতিথিদের বক্তব্য, পুরস্কার বিতরণীর পর নৈশভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা হয়। মেধাবীদের সকলকে ফোরামের পক্ষ থেকে সনদপত্র এবং উপহার প্রদান করা হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব মুহাম্মদ রশীদ চৌধুরী কৃতী ছাত্রছাত্রীদের ফলাফলে নিজেকে গর্বিত উল্লেখ করে বলেন, ‘তোমরা প্রবাসেও বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করেছ। তোমাদের মেধা, অধ্যবসায় আর নিরলস প্রচেষ্টা আজ তোমাদের যে সম্মাননা এনে দিয়েছে, তা শুধু তোমাদের নয়; আমাদের সকলের।’ দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার পাশাপাশি আগামীতে নিজেদের যোগ্যতা, মেধা, দক্ষতা দিয়ে দেশের সার্বিক কল্যাণে ভূমিকা রাখার উপর তাকিদ দিয়ে জনাব চৌধুরী বলেন, ‘আজকের কৃতীরাই আগামীর কর্ণধার। একদল সৎ, যোগ্য, দক্ষ লোকই পারে একটি দেশকে উন্নতির স্বর্ণশীখরে আরোহন করাতে।’ তিনি দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গঠনে নৈতিক শিক্ষার প্রতি গুরুত্বারোপ করে কৃতী ছাত্রদের দেশ গড়ার লক্ষ্যে নিজেদেরকে উপযুক্ত করে গড়ে তোলার জন্য আহবান জানান।
সভাপতির বক্তব্যে জনাব ওহিদুল ইসলাম বলেন, ‘অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে জীবনের ১০টি শিক্ষাবর্ষ অতিক্রম করে একজন ছাত্রের এই সফলতা একটি বড় অর্জন।’ বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ প্রবাসে যারা এবারের এসএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছে তাদের সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তোমাদের আজকের এই ফলাফল অত্যন্ত আনন্দের। নিজেদের মনের মণিকোঠায় লালিত স্বপ্নই আজকের এই সফলতার নিয়ামক।’ নিজের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে জীবনে একাধিকবার সারা বাংলাদেশে প্রথম স্থান অধিকারী হারভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এককালের কৃতী ছাত্র জনাব ওহিদ দেশের স্বার্থে আত্মগঠনের উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, ‘দেশের প্রতিটি সেক্টরে কৃতীরা যোগ্যতার সাথে ভূমিকা পালন করলে তবেই দেশ এগিয়ে যাবে।’
কিশোরকণ্ঠ পাঠক ফোরাম পরিচালক জনাব ইঞ্জিনিয়ার কামরুল আহসান মিয়া প্রবাসী বাংলাদেশী ছাত্রছাত্রীদের পাঠ্যপুস্তক অধ্যয়নে গুরুত্বারোপের পাশাপাশি নিজেদেরকে সৎ, যোগ্য, দক্ষ করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাতারস্থ কিশোরকণ্ঠ পাঠকফোরামের কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে অভিভাবকদের মধ্য থেকে কাতার কমার্শিয়াল ব্যাংকের জেনারেল সার্ভিস ম্যানেজার জনাব মোস্তফা খন্দকার, কৃতীদের মধ্য থেকে নোমান বিন ইনতেখাব ও গাজী আসমা সালাহ উদ্দিন বক্তব্য রাখেন।

SHARE

1 COMMENT

Leave a Reply