Home কুরআন ও হাদিসের আলো কুরআনের আলো কোরআনের আলো

কোরআনের আলো

সুমিষ্ট ফল-মূল মানুষের প্রতি আল্লাহর দান

বিস্মিল্লাহির রাহমানির রাহীম
‘‘পৃথিবীকে তিনি সমস্ত সৃষ্টির জন্য বানিয়েছেন। এতে আছে ফল-মূল এবং বহিরাবরণবিশিষ্ট খর্জুর বৃক্ষ। আর আছে খোসাবিশিষ্ট শস্য ও সুগন্ধি ফুল। অতএব তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?” (সূরা আর রহমান : ১০-১৩)

বন্ধুরা, উল্লিখিত আয়াতসমূহ পবিত্র কুরআনের অতি পরিচিত একটি সূরা আর রহমানের। এটি মদিনায় অবতীর্ণ যদিও বিষয়বস্তুর বিচারে মাক্কি সূরা বলেও কেউ কেউ বলেছেন। আয়াতসমূহে আল্লাহ উল্লেখ করেছেন যে, তিনি পৃথিবীকে এমনভাবে সৃষ্টি করেছেন যেন তা নানা প্রকার প্রাণিকুলের বসবাস ও জীবন যাপনের উপযোগী হয়। তিনি নিজের জ্ঞান ও সৃষ্টি কৌশলের আলোকে এ পৃথিবীকে এ অবস্থানে সংস্থাপন করেছেন এবং তার পৃষ্ঠদেশে এমন পরিবেশ ও অবস্থা সৃষ্টি করেছেন যার ফলে প্রাণধারী প্রজাতিসমূহের পক্ষে এখানে টিকে থাকা সম্ভব হয়েছে। তার দয়া এতটাই প্রসারিত যে তিনি সৃষ্টির সাথে সাথে এখানে তাদের লালন পালন এবং রিজিকের ব্যবস্থাও করেছেন।
মানুষ ও সৃষ্ট জীবের জন্য তিনি ভোজ্য খাদ্যদ্রব্য চাল, গম, যব, ডাল, শিম, খেজুর, আম, কাঁঠাল, আপেল, আনারস, কলা, কমলালেবু, নারিকেল, বাদামসহ নানা প্রকার উদ্ভিদ তৈরি করেছেন যা আমাদের দৈহিক বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য গঠনের জন্য একান্ত অপরিহার্য। আয়াতে উল্লিখিত খেজুর ফল শর্করা, ক্যালসিয়াম, আর ভিটামিন অ, ই-তে অত্যন্ত সমৃদ্ধ। ভেজা খেজুরে শর্করা থাকে ৬০% আর শুকনা খেজুরে শর্করার পরিমাণ ৭০%। আঙুর অতি সুস্বাদু ফল হিসেবে সর্বসাধারণের কাছে অতি প্রিয়। মানবদেহের পুষ্টি সাধনের প্রয়োজনীয় উপাদান যথা- আয়রন কার্বোহাইড্রেট, সাইট্রিক অ্যাসিড, ভিটামিন অ, ই প্রচুর পরিমাণে আছে। আম, কাঁঠাল, লিচু, আনারস, তরমুজ ইত্যাদি মৌসুমি ফল প্রচুর পরিমাণে উৎপন্ন হয় আমাদের দেশে। তুলনামূলকভাবে কম দামে পাওয়া এসব ফলে আছে প্রচুর ভিটামিন, যা আল্লাহ মানুষের কল্যাণেই সৃষ্টি করেছেন। কাজেই এসব মৌসুমি ফল ছোট বড় সবার জন্য উপকারী ও লোভনীয়।

বন্ধুরা, এসব ফল বেশি পরিমাণে খাওয়ার চেষ্টা কর এবং যিনি এসব ফলফলাদির মাঝে বিভিন্ন রকমের স্বাদ ও ঘ্রাণ দিয়েছেন সে মহান আল্লাহর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কর। আর অসহায় অনাথ দরিদ্র শিশু-কিশোরদের মাঝে একটু বিলাতে পারলে তারাও উপকৃত হবে এবং মহান আল্লাহও সন্তুষ্ট হবেন।
প্রিয় বন্ধুরা, এসো আমরা আল্লাহর দেয়া সকল ফল-মূল, খাদ্যশস্য ভোগ করি অতঃপর তাঁর আরো বেশি অনুগত হই। আল্লাহ আমাদের তৌফিক দিন- আমিন।

গ্রন্থনায় : মিজানুর রহমান

SHARE

1 COMMENT

  1. পড়ে মন ভরে গেল। ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর করে লিখার জন্যে।

Leave a Reply to সালাহ আদ-দীন Cancel reply