Home নিয়মিত হাসির বাকসো

হাসির বাকসো

আকছার : ইয়াসিন, বলতো ট্রেন চলার সময় রেল লাইনের উপর দিয়ে যাওয়ার রাস্তাগুলো বন্ধ করে দেয় কেন?
ইয়াসিন : ট্রেন চলার সময় রাস্তা বন্ধ না থাকলে ট্রেন যদি ভুল করে পাকা রাস্তায় ঢুকে পড়ে, সেই কারণে।
সংগ্রহে : আসাদুজ্জামান রানা
মাস্টারপাড়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

বাবা ও ছেলের মধ্যে কথা হচ্ছে-
ছেলে : আব্বু, ২২ আর ৫৩ কত হয়?
বাবা : এতদিন স্কুলে পড়ে এটাই পারিস না? যা, ঘর থেকে ক্যালকুলেটরটা নিয়ে আয়।
সংগ্রহে : রাকিবুল ইসলাম ইমন
বামনপুর চরমাথা, জয়পুরহাট

একটি নদীর দুই তীরে দুই ব্যক্তি দাঁড়িয়ে আছে। কিন্তু নদীতে কোনো নৌকা নেই।
প্রথম ব্যক্তি : (চিল্লিয়ে) ভাই, আমি ওপারে যেতে চাই। কী করা যায় বলুন তো?
দ্বিতীয় ব্যক্তি : পাগল হয়েছেন! আপনি তো ওপারেই রয়েছেন।
সংগ্রহে : ফারিদ মুস্তাকীম
শিবগঞ্জ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

বই মেলায় ক্রেতা-বিক্রেতার মাঝে কথা হচ্ছে-
ক্রেতা : আপনাদের স্টলে পিরামিডের উপরে লেখা কোনো বই আছে?
বিক্রেতা : না ভাই, আমাদের সব বই কাগজের উপরে লেখা।
সংগ্রহে : হাফিজুর রহমান হাফিজ
শ্যামনগর, সাতক্ষীরা

ডাক্তার : আপানার ক্ষিধে কেমন?
রোগী : এই আছে এই নেই।
ডাক্তার : মানে! কখন ক্ষিধে থাকে না?
রোগী : খাওয়ার পর।
সংগ্রহে : বিপুল রায়হান
পাকারমাথা, রংপুর

রহিম : বলতো, শীতের সময়ও রাতে বিদ্যুৎ বেশি সময় থাকে না কেন?
করিম : আরে বিদ্যুৎ বেশি রাত পর্যন্ত থাকলে ঠাণ্ডা লাগবে। তাই সে ঘুমিয়ে পড়ে।
সংগ্রহে : মো: বারিক
আমঝুপী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মেহেরপুর

ছেলে : আমি আর স্কুলে যাব না আব্বু।
বাবা : কেন? পড়াশোনা করতে ভালো লাগছে না?
ছেলে : তা নয়। তবে স্কুলে স্যার কিছুই জানেন না। সব সময় পড়া আমাকেই জিজ্ঞেস করেন।
সংগ্রহে : ফয়সাল ইসলাম
বাসুদেবপুর, রাজশাহী

মা : বাবু পড় ‘অ’।
বাবু : মা, আমি ‘অ’ পড়তে পারি না।
সংগ্রহে : নাহিদ সরকার
চাটখিল, নোয়াখালী

নার্স ঘুমন্ত রোগীকে জোর করে ডেকে তুলছেন দেখে চিকিৎসক জিজ্ঞেস করলেন, আরে আরে করছেন কী? অযথা ঘুমন্ত রোগীক ডাকছেন কেন?
নার্স মুখ কাচুমাচু করে বললেন, স্যার, রোগীর এখন ওষুধ খাওয়ার সময়। না ডাকলে সঠিক সময়ে তার ওষুধ খাওয়া আর হবে না।
চিকিৎসক রেগে বললেন, তা কী সেই ওষুধ, যেটা তাকে এখনই খাওয়াতে হবে?
নার্স : ঘুমের ওষুধ, স্যার।
সংগ্রহে : আতাউর রহমান
দূর্গাপুর, রাজশাহী

SHARE

Leave a Reply