Home চিত্র-বিচিত্র গাছের ফুয়ারা -অতুল করিম

গাছের ফুয়ারা -অতুল করিম

প্রকৃতিতে বিচিত্র ঘটনা ঘটে। কিছু আশ্চর্য ঘটনা আমাদের শিহরিত করে। এমন অনেক ঘটনা প্রকৃতিতে ঘটে, যা সাধারণভাবে ব্যাখ্যা করাও কঠিন হয়ে যায়। তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ মন্টিনেগ্রোতে। একটি গাছের ভেতর থেকে ফোয়ারার মতো বেরিয়ে আসছে পানি।
মন্টিনেগ্রোর ছোট্ট একটি গ্রাম ডিনোসা। সেখানে একটি জায়গায় ঘাসের ওপর রয়েছে বিশাল একটি মালবেরি গাছ। সেই গাছের কাণ্ডের ভেতর থেকেই ফোয়ারার মতো বেরিয়ে আসছে পানি।
দেখে মনে হবে যেন গাছের ভেতরে পানির কল রয়েছে। আর সেখান থেকেই বেরিয়ে আসছে অবিরাম এই পানির ধারা। এই গাছটির বয়স ১০০ থেকে ১৫০ বছর।
বসন্তকালে এই অঞ্চলে প্রবল বৃষ্টিপাত হলে এই তুঁত গাছ থেকে বেয়ে পড়ে অঝোর ধারায় পানি। স্থানীয়রা জানান গত ২৫-৩০ বছর এই গাছ থেকে পানি পড়ছে।
গাছটি নিয়ে পরীক্ষা করলে জানা যায়, এই গাছের নিচে রয়েছে একটি পানির আধার। বর্ষাকালে মাটির নিচে পানির স্তর বেড়ে গেলে মাটির ওপরে সেই পানি বেরিয়ে অসে। ভূস্তরে কোনোরকম ছিদ্র থাকলে সেই ছিদ্র দিয়ে বেরিয়ে আসে মাটির নিচের পানি।
যে স্থানে গাছটি রয়েছে সেটি ঢালু। যখন প্রচুর বৃষ্টি হয় তখন প্রবল বেগে গাছের গোড়ায় পানির চাপ সৃষ্টি হয়। সেই চাপ গাছের ফাঁকা অংশ দিয়ে ওপরে উঠে যায়।
গাছটি অনেক বছরের পুরনো হবার কারণে এর মাঝে একটি ফাঁকা অংশ তৈরি হয়। গাছের নিচে বৃষ্টির পানির চাপ এসে পড়লে নিচ থেকে পানি গাছের ওই ফাঁপা অংশ বেয়ে ওপরে উঠে নির্গত হয়। যে কারণে দেখা যায় গাছের দেহ ছিঁড়ে পানি বের হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে গাছটির কাণ্ডটি কাজ করছে একটি ফাঁপা নলের মতো।
আরও জানা যায়, বছরে মাত্র দুই থেকে তিন দিন এই গাছ থেকে পানি বের হবার এমন ঘটনা ঘটে।
এই গাছের মতো একটি কুয়া আছে এস্তোনিয়ান গ্রাম তুহালাতে। যাকে বলে ভৌতিক কুয়া। অর্থাৎ কুয়াতে একসময় কোনো পানি থাকে না। আবার একসময় কুয়া উপচিয়ে পানি পড়ে।
কুয়ার এমন অদ্ভুত ঘটনা সম্পর্কে কেউ জানে না বলে একে ভৌতিক কুয়া বলে। মূলত কুয়াটি রয়েছে একটি নদীর ওপর। নদীতে ভারী বর্ষণ হলে পানির চাপ গিয়ে কুয়ার ওপর পড়ে। তখন কুয়া উপচিয়ে পানি পড়তে থাকে। বৃষ্টি কমে গেলেই পানি পড়া বন্ধ হয়ে যায়। ঠিক মালবেরি গাছের মতো।

SHARE

Leave a Reply