Home আইটি কর্নার ভয়েস কল থেকে ভিডিও কল সবই হবে জিমেইলে -সিরাজ মাহমুদ

ভয়েস কল থেকে ভিডিও কল সবই হবে জিমেইলে -সিরাজ মাহমুদ

জিমেইল তথা গুগল-মেইলে অ্যাকাউন্ট নেই অনলাইন দুনিয়ায় বোধ হয় এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। চিঠি-পত্তরের আদান-প্রদানের ডিজিটাল সিস্টেম হিসেবে আবির্ভাব হয়েছিল জিমেইলের। গতি এবং নিশ্চয়তার জন্য খুব সহজেই সারা পৃথিবী জয় করে নেয় গুগলের এ সার্ভিস। তারপর একে একে যুক্ত হতে থাকে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা। সে ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি গুগল কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দিয়েছে- জিমেইলে আসছে ভিডিও কল সুবিধা। এ বিষয় নিয়েই আমাদের এবারের আলোচনা-
করোনা মহামারীর কারণে সারা বিশ^ ছিল ঘরবন্দি। এ সময় জিমেইলের ব্যবহার বেড়ে গেছে বহুগুণে। ব্যক্তিগত কাজ থেকে শুরু করে দাফতরিক কাজ, সবখানেই এর ব্যবহার। অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীরা তো আগে থেকেই জিমেইল ছাড়া এক মুহূর্তও চলতে পারে না। তবে জিমেইলে ভয়েস কল বা ভিডিও কলের কোনো ব্যবস্থা ছিল না। এ জন্য সবাই গুগল মিট, জুম মিটিং বা হোয়াটসঅ্যাপের মতো অ্যাপের সাহায্যে অডিও-ভিডিও কল করতো। ইদানীং অফিস বা ব্যবসার প্রয়োজনে ভিডিও কনফারেন্সও করতে হয়। তবে এখন থেকে জিমেইল চ্যাটের সাহায্যেও ভয়েস কল ও ভিডিও কল করা যাবে।

এ জন্য অবশ্যই জিমেইল ওয়েব অ্যাপের সাহায্যে নিতে হবে। যেকোনো ডেস্কটপ, ল্যাপটপ, অ্যান্ড্রয়েড ফোন, স্মার্টফোন বা অন্যান্য ডিভাইস থেকে এ সুবিধা পাওয়া যাবে। এ ক্ষেত্রে গুগল মিট ব্যবহার করা লাগবে না। সরাসরি মেইল খুলে রাখলেও ভিডিও কল করা যাবে। গুগল প্রথমে জিমেইল অ্যাপের মধ্যে একে অপরকে (কন্টাক্ট লিস্টের) কল করার সহজ উপায় চালু করবে। তারপর কোনো ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট নির্দিষ্ট করে সেখানে ডায়াল করলেই তার ফোনে কল যাবে। স্মার্টফোন বা যেকোনো কল করার উপযোগী ডিভাইস থেকে এই কলের উত্তর দেওয়া যাবে।

বর্তমানে গুগল ব্যবহারকারীদের মিটিংয়ে বা ভিডিও কলে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য একটা ইউআরএল তৈরি করে। নতুন সুবিধা চালু হলে এ ঝামেলাও থাকবে না। সুতরাং এটা ব্যবহারকারীদের আরও সহজ ও সাবলীল কলিং এক্সপেরিয়েন্স দেবে। সুতরাং বলাই যায়- জিমেইলের নতুন এই ফিচারের অপেক্ষায় আছে সারা বিশ^।

SHARE

Leave a Reply