Home হাসির বাকসো হাসির বাকসো

হাসির বাকসো

দুই বন্ধুর মধ্যে কথোপকথন-
১ম বন্ধু : কিরে এখানে বসে কী করছিস ?
২য় বন্ধু : প্রতিশোধ নিচ্ছি।
১ম বন্ধু : প্রতিশোধ? কার ওপর?
২য় বন্ধু : সময়ের ওপর।
১ম বন্ধু : কিভাবে?
২য় বন্ধু : সময় আমার জীবনকে নষ্ট করেছে তাই আমিও সময় নষ্ট করছি।
মিরাজ হোসেন, রায়পুর, লক্ষ্মীপুর

এক ছেলে (বাবু) এবং ভিক্ষুকের মধ্যে কথা হচ্ছে-
ভিক্ষুক : বাবু তোমার আম্মুকে বল না আল্লাহর ওয়াস্তে কিছু সহযোগিতা করতে।
ছেলে : ভিক্ষা করছ কেন? কাজ করতে পারছ না।
ভিক্ষুক : আমাকে কে কাজ দেবে।
ছেলে : তুমি পুরো এলাকা ভিক্ষা করে আমাকে দেবে। আমি তোমাকে ২০০ টাকা করে দেবো।
মেহেদি হাসান
মমতাজেন্নেছা মেমোরিয়াল উচ্চবিদ্যালয়, রায়পুর, লক্ষ্মীপুর

বল্টুর হাতে আইফোন দেখে তার বন্ধু আবুল বলল- ওয়াও! কী সুন্দর মোবাইল! কত দিয়ে কিনেছ?
বল্টু : আরে! দৌড় প্রতিযোগিতায় জিতেছি।
আবুল : ওয়াও! কতজন দৌড়েছিল?
বল্টু : তিনজন পুলিশ, এক মোবাইল ফোন ব্যবসায়ী আর আমি!!
হান্নান উদ্দিন, তনুবী পাড়া, লোহাগাড়া

একটা ছেলের মোবাইল ফোন চুরি করে ছিনতাইকারী দৌড়াচ্ছে। আর ছেলের বাবা ছিনতাইকারীর পিছনে পিছনে ছুটছে।
ছিনতাইকারী : আর দৌড়াতে পারছি না, দৌড়াতে দৌড়াতে হাঁফিয়ে গেছি! এই আপনার ছেলের মোবাইল নিয়ে যান।
ছেলের বাবা : এ কথা মুখে আনবি না। এই মোবাইলের জন্য আমার ছেলের পড়াশুনা ঠিক মতো হয় না।
ছিনতাইকারী : তাহলে আমার পিছনে পিছনে দৌড়াচ্ছেন কেন?
ছেলের বাবা : অশিক্ষিত চোর, হেডফোন আর চার্জারটা নিয়ে যা মোবাইল চার্জ দিবি কিভাবে।
ছিনতাইকারী : এ কথা শুনে বেহুঁশ।
রাকিব হোসেন রানা, চর আনন্দ, ভোলা

শিক্ষক ও ছাত্রের মধ্যে আলাপন
শিক্ষক : বলতো বল্টু সবচেয়ে চালাক প্রাণী কী?
ছাত্র : গরু।
শিক্ষক : কিভাবে?
ছাত্র : সার প্রবাদ আছে না- অতি চালাকের গলায় দড়ি। গরু খুবই চালাক তাই তার গলায় দড়ি থাকে।
রেদওয়ান আহমেদ, ইটাউরি, বড়লেখা

একদিন বল্টু বাজারে গিয়েছে মাছ কিনতে-
বিক্রেতা : এই নাও তোমাকে ওজনে কিছুটা কম দিলাম বাসায় নিয়ে যেতে সুবিধা হবে।
বল্টু : এই নিন টাকা।
বিক্রেতা : একি মাছের দাম তো একশত টাকা, দশ টাকা দিলে কেন?
বল্টু: টাকাটা একটু কম দিলাম যাতে আপনার গুনতে সুবিধা হয়!
আব্দুল মমিন, নাচোল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

SHARE

Leave a Reply