Home নিয়মিত খোলা-ডাক খোলা-ডাক

খোলা-ডাক

আনন্দের উৎস
কিশোরকণ্ঠ হলো গল্পসমৃদ্ধ একটি বই। আর গল্প মানেই আনন্দ। আমি যখনই সময় পাই তখনই কিশোরকণ্ঠ পড়ি। এভাবে আমি আনন্দ পাই। একটি কিশোরকণ্ঠ পড়া শেষ হলে পরের কিশোরকণ্ঠের জন্য অপেক্ষা করতে থাকি। কিশোরকণ্ঠ না পাওয়া পর্যন্ত আমার ঘুম হয় না। এক কথায় কিশোরকণ্ঠ হলো আনন্দের সাথী।
মো. রাফা, ঢাকা

পাঠক হতে শেখায়
কিশোরকণ্ঠ অদ্ভুত এক জাদুর বাক্স। একজন ছাত্রকে কুরআন ও হাদিসের আলো এবং হাসির বাকসো ইত্যাদির মাধ্যমে ধীরে ধীরে তার মধ্যে বইপাঠের পিপাসা তৈরি করে, যা তাকে ‘পড় তোমার প্রভুর নামে’ সেই ঐশী বাণীর কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়। আর এসব কেমন জানি জাদুর মতোই হয়ে যায়। একজন যোগ্য শিক্ষক যেমন একজন ভালো ছাত্র হতে সাহায্য করেন, ঠিক তেমনি কিশোরকণ্ঠ একজন ছাত্রকে ভালো পাঠক হতে সাহায্য করে।
মু. তারিকুজ্জমান
পঞ্চগড় শহর, পঞ্চগড়

আত্মতৃপ্তি
কিশোরকণ্ঠ তুমি আমার জীবনে মরুভূমির প্রবল উত্তাপের মাঝে এক পাত্র ঠাণ্ডা পানির মত। তোমার লেখা পড়ে আমি খুবই আত্মতৃপ্তি লাভ করি। আত্মার বিগলিত শান্তির কণা খুঁজে পাই তোমার এই সুন্দর লেখার মধ্যে। দোয়া করি আল্লাহ যেন কেয়ামত পর্যন্ত বাঁচিয়ে রাখেন আমার এই প্রিয় পত্রিকাটি। আমার জন্যও দোয়া করবেন।
মো: মিজানুর রহমান মুন্না
সুবর্ণচর, নোয়াখালী

অনাবিল আনন্দ
অধীর আগ্রহে বসে থাকি তোমার জন্য। পাঠ্যপুস্তক বইয়ের পরে আমার কাছে সবচাইতে বেশি ভালো লাগে মাসিক পত্রিকা কিশোরকণ্ঠ। এই পত্রিকার সবগুলো বিভাগই আমার কাছে খুব ভালো লাগে। বিশেষ করে কুরআনের আলো এবং হাদিসের আলো পড়ে আমি মজার সাথে বিষয়গুলো অনুধাবন করতে পারি। তা ছাড়া সায়েন্স ফিকশন, খেলার চমক, আইটি কর্নার, ফিচার এবং হাসির বাকসো পড়ে আমি অনাবিল আনন্দ উপভোগ করি। প্রিয় এই পত্রিকাটি পাওয়ার জন্য তাই অধীর আগ্রহে বসে থাকি।
শেখ মামুন হাসান
অনন্তপুর, ফুলবাড়ী, কুড়িগ্রাম

কিশোর আদর্শবান হবে
এই কিশোরকণ্ঠে রয়েছে জ্ঞানের ভাণ্ডার যা অধ্যয়ন করার মধ্য দিয়ে একজন কিশোরের যেমন মেধার বিকাশ হবে ঠিক তেমনি এটি পড়ার মাধ্যমে আদর্শবান হিসাবে গড়ে উঠবে, কারণ কিশোরকণ্ঠে যে বিষয় থাকে এর প্রায় সব কিছুতে ইসলামিক শিক্ষার আলো পাওয়া যায়। এখান থেকে শিক্ষা পাওয়া যায় ইসলাম ধর্মকে কিশোর বয়সে জানার এবং প্রত্যেকটি উপন্যাস, ঘটনা, গল্প, কবিতা ইসলাম সম্পর্কে। তাই নিশ্চিত এই কিশোরকণ্ঠ অধ্যয়ন করলে, একজন কিশোর আদর্শবান হিসেবে গড়ে উঠবে।
মো. মিজানুর রহমান
হাতিরঝিল পশ্চিম, মগবাজার, ঢাকা

উপদেশ
মানুষ সৃষ্টি হতেই একে অপরের প্রতি নির্ভরশীল, কেউ নিজে নিজে বড় হতে পারে না, বড় হওয়ার জন্য কারো না কারো উত্তম উপদেশবাণীর প্রয়োজন। আর সেই উপদেশদাতা যদি ট্যালেন্ট, জ্ঞানী, চরিত্রবান ও সৎ হয়, তাহলে তো কোনো কথাই নেই। আলহামদুলিল্লাহ! ‘কিশোরকণ্ঠ’ তারই একজন। তার উপদেশবাণী আমাকে জাগিয়েছে লেখার, পড়ার, স্বপ্ন আঁকার জন্য। তার ছড়া-কবিতা, আমাদের কথা, স্বাস্থ্যকথা, বিজ্ঞানবিশ্ব, আইটি কর্নার, বলতে পারো, গল্প-উপন্যাস, দেশ-মহাদেশ ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতা আমাকে সর্বদা উপদেশ দিয়েই আসছে।
শুভকামনা রইল, সাফল্যের পথ ধরে এগিয়ে যাও প্রিয় নতুন কিশোরকণ্ঠ।
মো. ইয়াছিন আরাফাত
ডিমলা, নীলফামারী

SHARE

Leave a Reply