Home নিয়মিত খোলা-ডাক খোলা ডাক – জানুয়ারী ২০১৯

খোলা ডাক – জানুয়ারী ২০১৯

বিশ্বস্ত বন্ধু
কিশোরকণ্ঠ আমার জীবনের বিশ্বস্ত বন্ধু। আমি ২০১১ সাল থেকে কিশোরকণ্ঠের নিয়মিত পাঠক। কিশোরকণ্ঠ আমাকে সাহিত্য পড়তে অনুপ্রাণিত করেছে। আমি উপন্যাস পড়তে ভালোবাসি। আমি কিশোরকণ্ঠ থেকে সর্বপ্রথম উপন্যাস পড়া শুরু করি। আমার নিকট কিশোরকণ্ঠ সেরা একটি মাসিক প্রকাশনা। কিশোরকণ্ঠ সাফল্যের সাথে এগিয়ে যাবে এটাই আমার আশা।

এহসানুল হক নাফিস
টঙ্গী, গাজীপুর

জীবনচলার পাথেয়
পৃথিবীতে যতসব শিশু-কিশোর পত্রিকা আছে তার মধ্যে আমি মনে করি কিশোরকণ্ঠই সবচেয়ে বেশি জীবনচলার পাথেয় হিসেবে কাজ করে। এর কুরআনের আলো-হাদিসের আলো জীবনচলার পথে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আর স্বাস্থ্যকথা বিষয়ক যে লেখা হয় তা পাঠ করে আমরা আমাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ দিক জানতে পারি। দেশ, বিচিত্র বিভাগগুলো পাঠ করে আমরা সব দেশ সম্পর্কে জানতে পারি। সব মিলিয়ে কিশোরকণ্ঠ আমাদের জীবনচলার পাথেয় হিসেবে কাজ করে।

ইমাম হোসেন
চাম্বল, বাঁশখালী, চট্টগ্রাম

আমার ভালোবাসা
কিশোরকণ্ঠের প্রতিটি সংখ্যার প্রতিটি লেখাই আমার খুব ভালো লাগে। মাসের প্রথমে কিশোরকণ্ঠ পেতে দেরি হলে মনে খুব কষ্ট পাই। আবার যখন হাতে পেয়ে পড়তে শুরু করি তখন মনের কষ্ট সব এক নিমিষেই দূর হয়ে যায়। কিশোরকণ্ঠ আমার ভালোবাসা। তাই আমি কিশোরকণ্ঠকে মনে প্রাণে ভালোবাসি।

আলামিন শুভ
শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ

মনের মত পাওয়া
আমি এমন একজন বন্ধু খুঁজছিলাম যে আমাকে আলোর পর দেখাবে। জ্ঞান অর্জনে সাহায্য করবে। বিপদে পাশে দাঁড়াবে। আমার মধ্যে সত্যের বাণী ছড়াবে। আমার মনের দুঃখ দূর করে আনন্দ দেবে। আর সে রকম বন্ধুই আমি পেয়েছি। সে হলো প্রিয় কিশোরকণ্ঠ। জীবনে অনেক বন্ধু পাওয়া যায়। কিন্তু প্রকৃত বন্ধু পাওয়া খুব কঠিন। আমি সেই প্রকৃত বন্ধু পেয়েছি। আমার বিশ্বাস কিশোরকণ্ঠ আমার পাশে চিরদিন থাকবে। সে আমাকে জীবনের সঠিক পথ খুঁজতে সাহায্য করবে। অনেক বন্ধু শুধু ভালো থাকার জন্য আসে, বিপদের সময় তারা আর পাশে থাকে না। আমার বিশ্বাস কিশোরকণ্ঠ আমাকে বিপদে সাহায্য করবে এবং আমার মধ্যে অফুরন্ত জ্ঞান ছড়িয়ে দেবে। তাই আমি তাকে প্রিয় বন্ধু হিসেবে গ্রহণ করেছি।

সুলতান মাহমুদ ফাহাদ
রানীনগর, শিবগঞ্জ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

আলোর পথের দিশারি
দেশে প্রচলিত সকল শিশু-কিশোর পত্রিকা আছে তার মধ্যে কিশোরকণ্ঠ আমার কাছে সবচাইতে প্রিয় এবং গ্রহণযোগ্য পত্রিকা। এর শুরুতে রয়েছে কুরআনের আলো আর হাদিসের আলো। এর মাধ্যমে শিশু-কিশোররা পায় কুরআন-হাদিসের আলোর ধারার সন্ধান। এ ছাড়াও এর গল্পগুলো অনেক শিক্ষণীয়। আর আছে দেশ-বিদেশের অনেক খবরা-খবর সংবলিত অনেক বিভাগ। যেগুলো পাঠে বাড়ে জ্ঞানের পরিধি। পাওয়া যায় আলোর পথের সন্ধান। তাই বলা যায় কিশোরকণ্ঠ হলো আলোর পথের দিশারি।

মুহা. মুহিউদ্দীন আকেন্দী
চাম্বল, বাঁশখালী, চট্টগ্রাম

কিশোরকণ্ঠ এবং আমি
আজ ভাইয়া কিশোরকণ্ঠ এনেছেন। যখন কিশোরকণ্ঠ আসে, আমাদের মনে আনন্দের বান ডাকে। কার কাছে কিশোরকণ্ঠ কেমন, জানি না; আমার কাছে কিশোরকণ্ঠ কোকিলের কণ্ঠের মতোই প্রিয়। শুনেছি, ভালোবাসার চোখে যা দেখে তাই মনে হয় পৃথিবীর সেরা সুন্দর। হতে পারে কিশোরকণ্ঠের প্রতি ভালোবাসার কারণেই কিশোরকণ্ঠ আমার কাছে এতো সুন্দর। কিশোরকণ্ঠের প্রতিটা লেখা আমার হৃদয়কে স্পর্শ করে। কিশোরকণ্ঠের প্রতিটা লেখা আমাকে আলাদা সুবাস দান করে। কিশোরকণ্ঠের সান্নিধ্যে আমার সমস্ত সত্তা যেন সুবাসিত এবং আলোকিত হয়। আমাদের জীবনের বসন্ত-উদ্যানে কিশোরকণ্ঠ যেন চিরকাল সজীব থাকে।

ফয়সাল আহমেদ
বিনয়কাঠি, ঝালকাঠি

তুমি আমার স্মৃতি
আমি তোমাকে এখন প্রতি মাসে পড়ি। তোমাকে হাতে পাওয়ার সাথে সাথে পড়তে থাকি। যেভাবে থাকি না কেন। একদিন তোমাকে আমার বন্ধুর কাছে নিয়ে বাসায় আসতে আসতে পড়তে থাকি হঠাৎ করে আমি ছোট গর্তে পড়ে যাই। এ কথাটি মনে পড়লে এখনো আমার হাসি আসে। তোমাকে আমি কখনো ভুলবো না।

মো: আইনুল ইসলাম
রংপুর সরকারি সিটি কলেজ

SHARE

Leave a Reply