Home নিয়মিত খোলা-ডাক খোলা ডাক

খোলা ডাক

শিক্ষার উপকরণ
আমি প্রতিদিন কিশোরকণ্ঠ পড়ি। আমি যখন কিশোরকণ্ঠ পাই প্রথমে আমি কিশোর-উপন্যাস বিভাগটি পড়ি। কিশোরকণ্ঠ আমার চলার সাথী। এখন আমি কিশোরকণ্ঠকে শিক্ষার উপকরণ হিসেবে অবসর সময় পাঠ করি।
তাসমিয়াহ নাজাহ, আশাশুনি, সাতক্ষীরা

পাঠকের মুগ্ধতা
কিশোরকণ্ঠ পাঠক-পাঠিকার মধ্যে জ্ঞানের বৃষ্টি ঝরিয়ে গড়ে তুলেছে এক আলোকোজ্জ্বল ক্ষেত্র যা পাঠকের মনে জাগায় জ্ঞানের সেই শিহরণ, যেমন ফুলের মনকাড়া সুবাস ফুল প্রেমিকের হৃদয়ে শিহরণ জাগায়। ফুলের সুবাসে ঘর ছেড়ে বাগানে টেনে নিয়ে যায়। তেমনি এই পত্রিকা পাঠকের মনে মুগ্ধতা ছড়িয়ে যেন জ্ঞানের জগতে পাঠককে আহবান করে। শুভকামনা কিশোরকণ্ঠ।
মোহাম্মদ উল্ল্যা, সোনাইমুড়ি, নোয়াখালী

অবসর সময়ের সাথী
বাংলাদেশে অনেক ধরনের পত্রিকা রয়েছে। তার মধ্যে কিশোরকণ্ঠ অন্যরকম জ্ঞানের ভাণ্ডার। গল্প, উপন্যাস, প্রচ্ছদ রচনা, দেশের চিত্র, বিদেশ বিচিত্রসহ অনেক জানা-অজানা তথ্য আমাদের জ্ঞানকে সমৃদ্ধ করে, যা আমরা কিশোরকণ্ঠ থেকে পাই। কিশোরকণ্ঠ আমার অবসর সময়কে কাজে লাগিয়েছি। আমি আমার অবসর সময় কাটানোর জন্য কিশোরকণ্ঠকে সঙ্গী করে নিয়েছি।
মেজবাহ উদ্দীন শামীম, চৌদ্দগ্রাম, কুমিল্লা

অন্যরকম অনুভূতি
সেই ছোট্টবেলা থেকে কিশোরকণ্ঠের সাথে পরিচয়। সেই পরিচয়টা আজকের দিন পর্যন্ত চলমান। ছোট্টবেলায় কিশোরকণ্ঠের জন্য মাস শেষে অস্থির হয়ে যেতাম। বড় ভাইদেরকে নতুন কিশোরকণ্ঠের জন্য জ¦ালাতন করতাম। বিশেষ করে কারো লেখা বা কারো নাম প্রকাশ হলেতো আমাদের খুশির সীমাই থাকতো না। সব মিলিয়ে নতুন কিশোরকণ্ঠের জন্য ছিল এক অন্যরকম অনুভূতি, যা এখনো আছে এবং অনন্তকাল থেকেই যাবে।
ফারুক আল ফাহাদ
সাগরিয়া, হাতিয়া, নোয়াখালী

আমারই কণ্ঠ
হাঁটিহাঁটি পা পা করে আজ এখানে এসে খুঁজে পেয়েছি নিত্য বন্ধু কিশোরকণ্ঠ। এ পত্রিকা পাঠ করে আমি অজানাকে জানতে শুরু করি এবং নিজেকে জানতে ও গড়তে শিখি। এ বইগুলো আমাকে আনন্দ দেয়, দেয় পাঠের আগ্রহ। এ পর্যন্ত আমি ৪টি বই পাঠ করেছি। এ পাঠ আমাকে নতুন দিগন্তের সূচনা দেয়। জাগিয়ে তোলে আমারই কণ্ঠ।
সানিয়া ফেরদৌসি, সুনামগঞ্জ সদর

প্রিয় পত্রিকা
আমার কিশোরকণ্ঠ পড়ার বয়স মাত্র ৫ মাস। প্রতি মাসেই কিশোরকণ্ঠ জন্য হাজির হয় আমার বাড়ির আঙিনায়। আমি নতুন মাসের নতুন কিশোরকণ্ঠ পড়ে জানতে পারি নতুন নতুন সব তথ্য, যা একজন পাঠকের পত্রিকা পড়তে আরো আগ্রহী করে তোলে এবং পড়ালেখার একঘেয়েমি দূর করতে সহায়তা করে। তাই কিশোরকণ্ঠ আমার কাছে এক নতুন পত্রিকা। আমি কিশোরকণ্ঠের সর্বাঙ্গীণ মঙ্গল কামনা করি।
রেজাউল করিম সুজন
শিবগঞ্জ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

SHARE

Leave a Reply