Home স্বাস্থ্য কথা তরমুজের নানা গুণ -জুনাইদ জামশেদ

তরমুজের নানা গুণ -জুনাইদ জামশেদ

তরমুজ একটি শক্তিশালী ফল, যা শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী। তরমুজের বিস্ময়কর স্বাস্থ্য উপকারিতা আমাদের মস্তিষ্ক থেকে পায়ের পাতা পর্যন্ত প্রতিটি সেলকে কার্যকর করে তুলে। একমাত্র গ্রীষ্ম ঋতুতেই এ ফল জন্মে। তরমুজ সরস ও মিষ্টি স্বাদের হয়ে থাকে। এতে থাকে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, ভিটামিন এবং খনিজ। তরমুজের শতকরা ৯২ ভাগই পানি এবং প্রাকৃতিকভাবেই এতে কোনো চর্বি থাকে না।
তরমুজের পটাশিয়াম শরীরে ফ্লুইড ও মিনারেলসের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। এই তরমুজ দৈনন্দিন খাদ্য তালিকার একটি অংশ করলে আমাদের ইমিউন সিস্টেমকে বাড়াতে সাহায্য করবে ও চোখের জন্য পর্যাপ্ত পুষ্টির জোগান দেবে।
তরমুজ বিশেষ করে আমাদের কার্ডিওভাসকুলারের জন্য অত্যন্ত উপকারী এবং বর্তমান সময়ে দেখা গেছে এটি হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্যও অনেক বেশি প্রয়োজনীয়। তরমুজ ভাসডিলেশনের মাধ্যমে রক্তপ্রবাহ উন্নত করে ও কার্ডিওভাসকুলারের সাথে সম্পর্কিত ফাংশনসমূহ উন্নত করে। এটি হাড়ের গঠন শক্ত ও মজবুত করে। তরমুজ পটাশিয়াম সমৃদ্ধ ফল তাই হাড়ের ক্যালসিয়াম ধরে রাখতে সাহায্য করে এবং হাড়ের জয়েন্ট মজবুত করে।
গবেষণায় দেখা গেছে তরমুজ আমাদের শরীরের জমে থাকা চর্বি কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করে। অ্যামিনো অ্যাসিড যা কিডনির জন্য অত্যন্ত উপকারী। এ ছাড়াও তরমুজে আছে প্রচুর পরিমাণে পানি এবং অল্প পরিমাণে ক্যালরি। আর তাই পেট ভরে তরমুজ খেলেও সেই অনুযায়ী ওজন বাড়ে না।
তরমুজ ফ্ল্যাভোনয়েড, ক্যারটিনয়েড, ট্রিটেপেনইডিস এবং ফেনোলিক এর মতো যৌগের সমৃদ্ধ ফল। ফলে শরীরের যে কোনো প্রদাহ কমাতে সহায়তা করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ তরমুজ খেলে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস জনিত অসুস্থতা কমে যায়। এ ছাড়াও নিয়মিত তরমুজ খেলে প্রোস্টেট ক্যান্সার, কোলন ক্যান্সার, ফুসফুসের ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে যায়।
তরমুজ বেটাক্যারোটিনের একটি চমৎকার উৎস যা চোখের জন্য অত্যন্ত উপকারী। আর তাই নিয়মিত তরমুজ খেলে চোখ ভালো থাকে এবং চোখের নানা ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

SHARE

Leave a Reply