Home স্বাস্থ্য কথা হরীতকীর উপকারিতা -জুনাইদ জামশেদ

হরীতকীর উপকারিতা -জুনাইদ জামশেদ

হরীতকীর নাম আমরা খুব কমই শুনে থাকি। বলতে গেলে এখনকার ছেলে-মেয়েরা জানেই না হরীতকী বলতে কিছু আছে। ঔষধি গুণে ভরপুর একটি ফলের নাম হরীতকী। আয়ুর্বেদিক বিজ্ঞানে ত্রিফলা নামের যে তিনটি ফল রয়েছে তার মধ্যে হরীতকী অন্যতম। এই ফলটির স্বাদ তিতা। তবে এর রয়েছে নানা গুণ। এটি ট্যানিন, অ্যামাইনো এসিড, ফ্রুকটোজ ও বিটা সাইটোস্টেবল সমৃদ্ধ একটি ফল। ফলটি দেহের অন্ত্র পরিষ্কার করে এবং একই সঙ্গে দেহের শক্তি বৃদ্ধি করে। এটা রক্তচাপ ও অন্ত্রের খিঁচুনি কমায়। হৃদপিণ্ড ও অন্ত্রের অনিয়ম দূর করে। এটি পরজীবীনাশক, পরিবর্তনসাধক, অন্ত্রের খিঁচুনি রোধক এবং স্নায়ুবিক শক্তিবর্ধক। হরীতকী কোষ্ঠকাঠিন্য, স্নায়ুবিক দুর্বলতা, অবসাদ এবং অধিক ওজনের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।
চলুন জেনে নেয়া যাক হরীতকীর আরো কিছু উপকারিতা-
১. হরীতকীর অ্যানথ্রাইকুইনোন থাকার কারণে রেচক বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে হরীতকী। অ্যালার্জি দূর করতে হরীতকী বিশেষ উপকারী।
২. হরীতকী ফুটিয়ে সেই পানি খেলে অ্যালার্জি কমে যাবে।
৩. হরীতকীর গুঁড়া নারিকেল তেলের সঙ্গে ফুটিয়ে মাথায় লাগালে চুল ভালো থাকবে।
৪. হরীতকীর গুঁড়া পানিতে মিশিয়ে খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে।
৫. গলা ব্যথা বা মুখ ফুলে গেলে হরীতকী পানিতে ফুটিয়ে সেই পানি দিয়ে গার্গল করলে আরাম পাবে।
৬. দাঁতে ব্যথা হলে হরীতকী গুঁড়া লাগান, ব্যথা দূর হবে।
৭. রাতে শোয়ার আগে অল্প বিট লবণের সঙ্গে ২ গ্রাম লবঙ্গ বা দারুচিনির সঙ্গে হরীতকীর গুঁড়া মিশিয়ে খেলে পেট পরিষ্কার হবে।

SHARE

Leave a Reply