Home ছড়া-কবিতা ছড়া-কবিতা

ছড়া-কবিতা

ঈদের মানে
-স্বপন মোহাম্মদ কামাল

ঈদ মানে কি ফিরনি পোলাও
গোস্ত খাবার পালা?
ঈদ মানে কি নতুন গাড়ি
মুক্তো হীরের মালা?
কক্ষনো নয় কক্ষনো নয়
এ কক্ষনো নয়,
এই পুরাতন নিয়ম ভেঙে
ভুবন করো জয়।

সমাজব্যাপী শোষণ করার
নিষ্পেষিত যাঁতা-
ধনীর কাছে গরিব লোকের
হাতটা শুধুই পাতা!
ঈদ মানে নয় বিত্তশালীর
ভাগ্য ঘোরার চাকা,
ঈদ মানে নয় নিঃস্ব লোকের
জীবনটা হোক ফাঁকা।

সাম্য গড়ে বৈষম্যের
চূর্ণ করি গিরি,
তবেই পাবো ঈদের আসল
সার্থকতার সিঁড়ি।

 

ঈদের খুশি
-মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম

ঈদের দিনে হাসছে সবাই
নতুন জামা পরে
ফিরনি পায়েস রাঁধছেন দেখ
মা রান্নাঘরে।
সবাই দেখ ঈদগাহে
ঈদের নামাজ পড়ে
হিংসা ভুলে মিলছে সবাই
কোলাকুলি করে।
এতো খুশির মাঝেও তুমি
স্মরণ কর তাদের
খালি গায়ে ক্ষুধার সাথে
দিন কাটছে যাদের।
কুরবানির শিক্ষা সে তো
তাদের পাশে দাঁড়াবার
তাদের মুখের হাসি দিয়ে
ঈদের খুশি ছড়াবার।

 

বান-পানিতে ঈদ
-মাহফুজুর রহমান আখন্দ

বান পানিতে হাবুডুবু দেশ
ঈদের খুশির নেইতো পরিবেশ
রাজধানীতে বৃষ্টি মানেই বান
বাংলাদেশের শহর
নানান গাড়ির বহর
পানির মাঝেই চলছে গাড়ি
নৌকা অভিযান।

বানের তোড়ে জমির ফসল নষ্ট
গরিব চাষীর বাড়লো ভীষণ কষ্ট
এমন দিনেও ঈদ আমেজে মেতে
চেষ্টা সবার খুশির পরশ পেতে।

ঈদের চাঁদে বার্তা আনুক অন্তরে অন্তরে
ত্যাগের মশাল হাতে
গরিব দুখির সাথে
বিত্তশালী হাতটা বাড়াই তৃপ্তি সাড়ম্বরে
ত্যাগ-মহিমায় ঈদের খুশি আসুক সবার ঘরে।

ফুলের বনে খোকা
-আলম মুহাম্মদ

সূর্যমুখী মুখ বাড়িয়ে
ডাকলো ওরে খোকা
আমায় রেখে যাচ্ছ কোথায়
তুমি তো নও বোকা।

এদিক দেখ মুখটি আমার
সূর্যের হাসির মত
আমার থেকে ফুল বাগানে
ছড়ায় হাসি যত।

আমার থেকে অনেক হাসি
তুমিও নিতে পারো
হাসির ঝিলিক তোমার গালে
লাগবে ভালো আরো।

খোকা বলে মুচকি হেসে
চাই না এমন হাসি
খানিক পরেই মিলিয়ে যাবে
হবে যে তা বাসি।

এমন হাসি চাই ছড়াতে
থাকবে জীবনভর
জ্ঞানের আলোয় ছড়াক হাসি
ভরুক সব অন্তর।

কাকামিয়ার কুরবানি
-এস আই সানী

আমাদের কাকামিয়া ব্যাগভরা টাকা নিয়া
কুরবানির হাটে গেলো
সাথে তিন জন তার,
সবচেয়ে বড় পশু কাকামিয়া কিনবে যে
লোকে তারে চিনবে যে
বাহবা তো দেবে সবে
এই ছিল মন তার!
কাকামিয়া হাটে গেল সাথে তিন জন তার!
সারা হাট ঘুরে ঘুরে কাকামিয়া উড়ে উড়ে
পায়চারি করে গেল
তবুও তো পেলো না যে বড় গরু এল না যে
যাতে ভরে মন তার,
কাকামিয়া হাটে আছে সাথে তিন জন তার!
অবশেষে পেলো কাকা একপাশে বেঁধে রাখা
ইয়া বড় গরু যে খায় লতা, তরু যে
লাখ টাকা দাম তার,
কাকা তাকে নিয়ে এলো খুশি খুশি মন তার।
বাড়ি ফিরে কাকামিয়া আরো কিছু টাকা দিয়া
মাইকিং করে দিলো সারা গাঁ-
এই ঈদে সবচেয়ে বড় পশু তার কেনা,
তার মতো অত বড় কেউ নিতে পারবে না;
দেখে যাও শুনে যাও জেনে রেখো পাড়াগাঁ।
বলি কাকা, কুরবানি ওভাবে হয় না,
নিয়ত খাস না হলে তার ফায়দা রয় না।
তবু কাকা বুঝলো না গেল নাতো ঠেকানো,
কাকামিয়ার কুরবানি ছিলো লোক দেখানো।

SHARE

Leave a Reply