Home কুরআন ও হাদিসের আলো কুরআনের আলো কুরআনের আলো

কুরআনের আলো

জ্ঞানের আলো

জ্ঞান মহান আল্লাহর এক অনন্য উপহার। এ উপহার যে পেয়েছে, সে সবই পেয়েছে। কারণ, জ্ঞানের চেয়ে উত্তম জিনিস আর নেই। এমনকি পৃথিবীর সমগ্র ধন-সম্পদও জ্ঞানের তুলনায় তুচ্ছ।- বলছিলেন জনাব আহমদ সাকী। ছাত্ররা বেশ মনোযোগের সাথেই শুনছে কথাগুলো। তার অনন্য উপস্থাপনশৈলী তাদেরকে যেন আরো কৌতূহলী করে তুলছে। শামিল বলল, স্যার! এখানে জ্ঞান বলতে আমরা কোন ধরনের জ্ঞানকে বুঝব?
– যে জ্ঞান মানুষকে স্রষ্টার সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়। সুন্দরের পথ দেখায়। সততা, ন্যায়পরায়ণতা ও মানবকল্যাণের দুয়ার খুলে দেয়। মনে রাখতে হবে, আমরা পৃথিবীর এমন সব জ্ঞানই অর্জন করতে পারব, যেগুলো সরল পথ থেকে সরিয়ে দেয় না। মুছে দেয় না পরকালীন জীবনের বিশ্বাস। আচ্ছা! তোমাদেরকে একটি গল্প শোনাব। একজন নবী তার জ্ঞানী পুত্রকে কিভাবে সম্মান করেছেন তার গল্প!
হজরত দাউদ (আ)-এর নিকট এক ব্যক্তি নালিশ নিয়ে এলো। তার আঙ্গুর বাগান নষ্ট করেছে এক গোত্রের বকরিদল। তিনি রায় দিলেন, বকরিগুলো বাগানের মালিককে দিয়ে দিতে হবে। বিচার শেষে বকরি মালিকরা যখন ফিরে যাচ্ছিল, পথিমধ্যে তার ছেলে হজরত সোলায়মান (আ) জানতে চাইলেন রায় সম্পর্কে। তিনি তখন ছোট বালক। সব শুনে তিনি বললেন, আমি সেখানে থাকলে রায় অন্যরকম হতে পারত! দাউদ (আ) জানতে পেরে ডেকে পাঠালেন তাকে। কিশোর সোলায়মান (আ) বললেন, বকরিগুলো আপাতত বাগান মালিককে দিয়ে দিন। সে এগুলোর দুধ ও পশম থেকে উপকৃত হোক। আর বকরি মালিকদের আঙ্গুর বাগানটি বুঝিয়ে দিন। তারা তার পরিচর্যা করুক। বাগানটি পূর্বের অবস্থায় ফিরে গেলে তারা তাদের বকরিগুলো ফেরত পাবে।
হজরত দাউদ (আ) বিস্মিত হলেন এবং ছেলের কথা অনুযায়ী রায় পরিবর্তন করলেন। হজরত সোলায়মান (আ)-এর এ জ্ঞানের কথা ইতিহাস হয়ে থাকল। আল্লাহ কুরআনে বলেছেন, “আর স্মরণ করুন দাউদ ও সোলায়মানের কথা। যখন তারা ফসলের ক্ষেত সম্পর্কে রায় প্রদান করছিল। সে ফসলের ক্ষেতে রাতের বেলা এক সম্প্রদায়ের বকরি প্রবেশ করেছিল। আমি নিজেও তাদের বিচার পর্যবেক্ষণ করছিলাম। এবং আমি সোলায়মানকেই এর সঠিক রায় বুঝিয়ে দিয়েছি। তবে আমি তাদের দু’জনকেই দান করেছি প্রজ্ঞা ও জ্ঞান।” (সূরা আল-আম্বিয়া : ৭৮-৭৯)
এমন সুন্দর বিচার! পৃথিবীর প্রতিটি বিচারই যদি এমন হতো। বলল, আদীব।
হ্যাঁ। এ জন্যই আমাদের ডুবে যেতে হবে জ্ঞানের সমুদ্রে। কুড়িয়ে আনতে হবে মুক্তো-মানিক। তবেই তো প্রগতি, ন্যায়বিচার, সুখ ও শান্তিতে আলোকিত হয়ে উঠবে পৃথিবী।
বিলাল হোসাইন নূরী

SHARE

Leave a Reply