Home নিয়মিত খোলা-ডাক খোলা ডাক

খোলা ডাক

প্রাণের প্রিয় পত্রিকা তুমি
কিশোরকণ্ঠ আমার সবচেয়ে প্রিয় পত্রিকা। যার প্রতিটি বিভাগই চমৎকার ও শিক্ষণীয়! কিশোরকণ্ঠ পাঠের মধ্য দিয়ে আমরা অনেক অজ্ঞাত বিষয় জ্ঞাত হতে পারি। বিশেষ করে কুরআন ও হাদিসের আলো বিভাগটি পাঠের মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের চরিত্র গঠন করতে পারি। অন্য দিকে ‘হাসির বাকসো’ বিভাগটি পড়ে আমি আনন্দে আত্মহারা হয়ে যাই। তাই সব মিলেই কিশোরকণ্ঠ আমার প্রাণের প্রিয় পত্রিকা।
আবু হানিফ
সুন্দরগঞ্জ, গাইবান্ধা

সত্যানুসন্ধানী সৈনিক
খুব ছোটবেলা থেকেই যে পত্রিকা দেখে হৃদয় আনন্দে ভরে উঠত, তা হলো কিশোরকণ্ঠ। আমার দৃষ্টিতে কিশোরকণ্ঠ শুধু একটি পত্রিকা নয়, এটি সত্যের সেরা সৈনিক। অনৈসলামিক বৈরী পরিবেশে সুন্দর সমাজগঠনের জন্য যেসব সোনালি মানুষ প্রয়োজন, তাদের বিনির্মাণে সহায়কশক্তি কিশোরকণ্ঠ। এর প্রতিটি পৃষ্ঠা নতুন কিছু ভাবতে শেখায়, সুস্থ বিনোদন দেয়। দেশের প্রতিটি শিশু-কিশোর কিশোরকণ্ঠের আলোয় আলোকিত হোক, মহান রবের কাছে এ আমার একান্ত মুনাজাত।
তাযকিয়া তাবিয়া রিফাত
শান্তিনগর, পীর সাহেব গলি, ঢাকা

তৃপ্তি
একটি থালায় হাজার ফল কিশোরকণ্ঠে দেখতে পাই। একটি থালায় তৃপ্তি মেটানো হরেক রকমের খাদ্যের সমাবেশ, যা মনের তৃপ্তি মেটানোর জন্য যথেষ্ট। যখন কিশোরকণ্ঠ হাতে পাই, তখন সব কাজ আমার কাছে গুরুত্বহীন হয়ে পড়ে। সব কাজ ছেড়ে এটা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ি। এক একটা বিষয় ভিন্ন ভিন্ন ধরনের তৃপ্তি দেয় মনকে। যখন কোনো মাস শুরু হয়, মন আমার ছটফট করতে থাকে যতক্ষণ পর্যন্ত কিশোরকণ্ঠ হাতে না পাই। আর এই কিশোরকণ্ঠ হাতে পেলে মনে হয় হাজার রকম খাদ্য নিয়ে খুশি মনে বসে আছি, যেমনটি মনে হয় রমজানে ফল-ফ্রুট সমৃদ্ধ ইফতারের থালা সামনে নিয়ে বসে থাকার সময়।
এহছানুল হক সাঈদী
পদুয়া, লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম

চমৎকার প্রচ্ছদ
মাসের শুরুতে কিশোরকণ্ঠ হাতে পেয়ে এক নিমিষেই পুরো সংখ্যাটা পড়ে ফেললাম। পড়ার পর আফসোস ইশ কিছু যদি বাকি থাকত! প্রতিবারের মত এবারও সব বিভাগ ভালো লেগেছে। তবে সবচেয়ে ভালো লেগেছে নববর্ষের আমেজ ভরা প্রচ্ছদটা। হাতপাখা আর নগরজীবনের ইট, কাঠ, পাথরের আবহে বৈশাখী মেলা। অশেষ ধন্যবাদ কিশোরকণ্ঠ পরিবারকে অসাধারণ একটা প্রচ্ছদ আচ্ছাদিত কিশোরকণ্ঠ উপহার দেয়ার জন্য।

জ্ঞানের পথিক
আমি ছোটবেলা থেকেই কিশোরকণ্ঠ পড়ে আসছি। এ পত্রিকার মধ্যে নিয়মিত বিভিন্ন প্রকার গল্প, ছড়া ও কবিতা প্রকাশ পায়। যেগুলো পড়ে আমার মন উদ্বুদ্ধ হয়। এ পত্রিকা আমাকে বিভিন্ন গল্পের মাধ্যমে জ্ঞান জুগিয়েছে। তাই কিশোরকণ্ঠ আমার জ্ঞানের পথিক।
ফাহিম মিয়া
মাহিগঞ্জ, সদর, রংপুর

ভালোবাসি তোমায়
দেশের মধ্যে অনেক সাপ্তাহিক, মাসিক, দ্বিমাসিক, ত্রৈমাসিক পত্রিকা আছে। যেগুলোর ছোঁয়া প্রতি মাসে মিলে না, শুধুমাত্র পত্রিকার নামটা জানা আছে। কিন্তু প্রাণের প্রিয় পত্রিকা, যাকে ছাড়া তরুণ ছাত্রসমাজ অন্ধকারে, খুঁজে পায় না পথের পাথেয় সেই মাসিক সাড়া জাগানো মনোমুগ্ধকর কিশোরকণ্ঠ পত্রিকার প্রতি মাসে দেখা পাই। সেখানে লুকিয়ে থাকা পথের পাথেয় কুড়িয়ে নেয়া যায়, বিভিন্ন শিক্ষামূলক লেখা পড়ার সুযোগ হয়, প্রতিযোগিতামূলক বিভাগে অংশ নেয়া যায়। তাই প্রিয় মাসিক কিশোরকণ্ঠকে ভালোবাসি আর ভালোবেসে যাবো।
ইসলামুল হক তুষার
জলদী, বাঁশখালী, চট্টগ্রাম

SHARE

Leave a Reply