Home ছড়া-কবিতা বড়দের কবিতা

বড়দের কবিতা

জ্যৈষ্ঠ এলে
আবুল হোসেন আজাদ

জ্যৈষ্ঠ এলে দারুণ গরম গায়ে ঝরে ঘাম
সাথে আনে মধুমাসের পাকা কাঁঠাল আম।
আরো আছে জাম জামরুল বেল আর লিচু
তরমুজ বাঙ্গি শসা আতা আরো কত কিছু!
জ্যৈষ্ঠ মানে টইটম্বুর ফল ফলাদির মাস
আমরা দেখে মজা করে করি যে উল্লাস।
তাল শাঁস আছে কচি নরম খেতে সুস্বাদু
খেয়ে সবাই তৃপ্তি মেটায় খোকাখুকু দাদু।
তৃষ্ণার্তদের জন্য আছে গাছের কচি ডাব
রসেভরা কামরাঙা আর আছে পাকা গাব।
কাঁদিভরা লালচে খেুজর গোলাপজামও আছে
জ্যৈষ্ঠ এলে ফলের মজায় মন খুশিতে নাচে!

ভালোবাসি দেশকে
আবদুর রহমান আজাদ

ভালোবাসি দেশকে-
দেশের মাটিকে
পথ-ঘাট বন-মাঠ
সবুজের ঘাঁটিকে।

ভালোবাসি দেশকে-
দেশের গাঁওকে
কিচিরমিচির পাখি ও
পাখিদের ছাওকে।

ভালোবাসি দেশকে-
দেশের গানকে
বাতাসে দোল খাওয়া
সোনালি ধানকে।

ভালোবাসি দেশকে-
দেশের ছবিকে
কাব্য-গানে আঁকে সেই
শিল্পী ও কবিকে।

ভালোবাসি দেশকে-
দেশের সবকে
এত ভালোবাসার দেশ-
দানকারী রবকে।

সবচেয়ে প্রিয়জন
তোরাব আল হাবীব

এই জীবনে সবচে’ বেশি
ভালোবাসি যাঁকে
মনের মণিকোঠায় আমি
রাখি কেবল তাঁকে।
ধ্যান ধারণায় তিনিই আমার
সবচে’ প্রিয়জন,
যাঁকে ঘিরে এই পৃথিবীর
সকল আয়োজন।
সালাম জানাই দরুদ পড়ি
তাঁর ওপরে রোজই,
মনের টানে ঘুমের ঘোরে
ব্যাকুল হয়ে খুঁজি।
মদিনার ঐ কামলিওয়ালা
কুল জাহানের নবী,
তাঁর ওপরে ঈমান ছাড়া
মিথ্যে জীবন সবই।
তাঁর তারিফে কাব্য ছড়া
ছন্দ খুঁজে পায়,
সালাম দিতে প্রেমিক ছোটে
সুদূর মদিনায়।

কৃত্রিম বসবাস
তানভীর সিকদার

এখানে আকাশ ধূসর, নেই কোনো পাখিদের নীড়
দাঁড়ানো ইটের দালান আর শুধু জনতার ভিড়।
এখানে টাকার খেলায় হার-জেতা মানবের মন
অভাগা মানুষগুলোই- চাষ করে বিষাদের বন।

এখানে মায়ের সোহাগ, নেই কোনো রাখালের বীণ
পিঁয়াজে চোখের কাঁদন; এই কাটে ব্যাচেলর দিন।
এখানে হতাশ সবাই; স্বস্তির অবকাশ নেই,
জীবন সাজাতে শুধুই কৃত্রিম বসবাস এই!

SHARE

Leave a Reply