Home কুরআন ও হাদিসের আলো কুরআনের আলো কুরআনের আলো

কুরআনের আলো

ফাহিম স্যার। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের শিক্ষক হলেও তার প্রতিটি কথা ও কাজে বিশ্বাসের অবাক প্রতিফলন দেখা যায়। এমনকি ছাত্রদের সুন্দর চরিত্রগঠনের চেষ্টায় তিনি নিরলস এবং প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এ অনন্য বৈশিষ্ট্যের কারণেই স্যার সবার কাছে সমানভাবে শ্রদ্ধার পাত্র।
একদিন ক্লাসে এসেই স্যার কয়েকজন ছাত্রকে লক্ষ্য করে বললেন, আচ্ছা! তোমরা যেভাবে চুল কেটেছো, এটা তো আমার কাছে অস্বাভাবিক মনে হচ্ছে। তারা জানাল, এটা হচ্ছে তাদের প্রিয় একজন খেলোয়াড়ের ‘হেয়ার স্টাইল’। তারা আরও বলল, অধিকাংশ তরুণই এখন পছন্দের খেলোয়াড় কিংবা অভিনেতার ‘লাইফ স্টাইল’ অনুসরণ করে। তা না হলে নাকি ‘স্মার্ট’ হওয়া যায় না। এমনকি বন্ধুমহলে ‘সেকেলে’, ‘গেঁয়ো’ ইত্যাদি বিশেষণে বিশেষিত হতে হয়। স্যার গভীর মনোযোগ দিয়ে তাদের কথা শুনলেন। এরপর বললেন, বিশ্ববিখ্যাত বিশজন খেলোয়াড়ের নাম কে কে বলতে পারবে? সব ক’টি হাতই উপরে উঠল। কেউ কেউ বলল, মাত্র বিশজন? আমরা তো আরও বেশি বলতে পারব। স্যার বললেন, ধন্যবাদ। কিন্তু তোমরা এবার বলো তো, রাসূল (সা)-এর সেই সৌভাগ্যবান দশজন সাহাবী কারা ছিলেন, যারা পৃথিবীতেই জান্নাতের সুসংবাদ পেয়েছিলেন। এবার আর হাত তুলল না কেউ। সবাই একে অপরের দিকে তাকাচ্ছে। কারো কারো কাছে বিষয়টা যেন একেবারেই নতুন মনে হলো। স্যার বললেন, ঠিক আছে! এবার তোমরা যেকোনো পাঁচজন সাহাবীর নাম বলো। কেউ একজন আবার কেউ দু’জনের নাম বলতে পারল। স্যারের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ল। অপার বিস্ময়ের ছাপ ফুটে উঠল চোখে-মুখে!
এবার ছাত্রদের উদ্দেশে স্যার বললেন, শোনো! আমাদের জীবনের প্রতিটি কাজের আদর্শ হচ্ছেন মহানবী (সা)। আল্লাহ তা’য়ালা বলেনÑ “তোমাদের জন্য রাসূল (সা)-এর মধ্যেই রয়েছে উত্তম আদর্শ।” (সূরা আল আহজাব : ২১) আর রাসূল (সা)-এর এই আদর্শ অনুসরণ করেই সাহাবীগণ হয়েছিলেন সোনার মানুষ। অর্জন করেছিলেন পৃথিবীতেই জান্নাতের সুসংবাদ পাওয়ার মতো বিরল সম্মান। অথচ আমরা অনুসরণ করছি তথাকথিত খেলোয়াড়দের! রাসূল (সা)-এরও ‘হেয়ার স্টাইল’ ছিল। অথচ আমাদের তা জানাও নেই হয়তো। আমরা যদি দুনিয়া ও আখিরাতে সফল হতে চাই, রাসূলের আদর্শের কাছেই ফিরে যেতে হবে আমাদের। এসো আমরা রাসূল (সা)-এর জীবনকে গভীরভাবে অধ্যয়ন করি।
কিছুটা লজ্জা আর কিছুটা আবেগজড়িত কণ্ঠে ছাত্ররা সমস্বরে বলে উঠল, জি স্যার। যেন সবার ভেতরেই জেগে উঠল রাসূল (সা)-এর অনুপম আদর্শকে নিজেদের জীবনে ধারণ করার এক পবিত্র অনুভূতি।
বিলাল হোসাইন নূরী

SHARE

Leave a Reply