Home ছড়া-কবিতা শিশির ভেজা ভোর -আবু তাহের বেলাল

শিশির ভেজা ভোর -আবু তাহের বেলাল

ষড় ঋতুর পালাক্রমে কালের অমোঘ ডাকে
পাখির নীড়ে নদীর তীরে গহিন বনের বাঁকে
হিমালয়ের চূড়া থেকে প্রাণের বাংলাদেশে-
আবার এলো শীতের ছোঁয়া হেমন্তকাল শেষে।

শহর নগর গাঁয়ের পথে শীতের কাঁপন ভারি
চাদর মুড়ে ঠায় দাঁড়িয়ে গাছ-গাছালির সারি
পিঠা পুলির আকুল ব্যাকুল পাগল করা ঘ্রাণে
ভিন্ন রকম শীত আয়োজন দেয়রে দোলা প্রাণে।

কে যে কবে মাটির তলে ফেলেছিলো দানা
শীতের আমেজ পেয়ে দেখো মেললো সবুজ ডানা
বাঁধা কপি গাজর মুলা বরবটি লাউ শিমে-
শিং টাকিতে টেংরা শোলে বেশ লাগেতো হিমে।

খেজুর রসের গুড় পাটালি সাথে চিঁড়ের মোয়া
যায় না ভোলা মনের ভুলেও মায়ের আদর ছোঁয়া
শীত তাড়াতে নাড়ার আগুন হাতছানি দেয় গাঁয়ে
নরম রোদের নূপুর বাজে শিশির ভেজা পায়ে।

মেঠো পথে দূর্বাঘাসে মিষ্টি রোদের হাসি
চোখের তারায় স্বপ্ন জাগায় দীপ্ত অবিনাশী
গাছ-গাছালির শুকনো পাতা সন্ধ্যা সকাল ঝরে
সব কিছুতে বিরহী সুর- মন যে কেমন করে!

গরির-দুঃখী কষ্টে কাতর পায় না জামা শীতে
পারো তুমি হাত বাড়িয়ে একটু সোহাগ দিতে
সবার মাঝে সুখ খুঁজে নাও ভুলে দ্বিধা-দ্বন্দ্ব-
সমাজ জুড়ে ছুটবে আবার নতুন তালের ছন্দ।

SHARE

Leave a Reply