Home নিয়মিত আমাদের কথা আমাদের কথা

আমাদের কথা

প্রাণপ্রিয় বন্ধুরা, আসসালামু আলাইকুম।
আশা করি সবাই ভালো এবং সুস্থ আছো।
ডিসেম্বর মাসে তোমাদের বার্ষিক পরীক্ষা শেষ হচ্ছে। পরীক্ষা শেষ মানেই তো চিন্তামুক্ত স্বপ্নের রাজ্যে ডানা মেলা। কী মজা! এই মজার সাথেই আবার যুক্ত হচ্ছে শীতের আমেজ। খেজুরের রস, পিঠা, পায়েস আরও কত কী! ফলে মজা এবং আনন্দের মাত্রা তো দ্বিগুণ হওয়ারই কথা। আমাদের প্রত্যাশাও তাই। তোমরা আনন্দে থাকবে, হাসি-খুশি আর স্বপ্নের ডানা বিস্তার করবে এটাই আমরা কামনা করি।
বার্ষিক পরীক্ষার পর বেশ লম্বা ছুটি পাচ্ছো। এখনই ঠিক করে নাও সময়গুলো কিভাবে কাজে লাগাবে। কারণ, সময়ের গুরুত্ব অপরিসীম। সুতরাং পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রতিটি মুহূর্তই ব্যয় করা উচিত। বিষয়টির দিকে খেয়াল রাখবে বলে আশা করি।
১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস। দিনটির কথা মনে আছে তো? কেন থাকবে না। জানই তো কত রক্ত, কত ত্যাগ আর সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আমরা পেয়েছি আমাদের প্রাণপ্রিয় দেশটির স্বাধীনতা। এই বিজয়ের আনন্দই যে আলাদা! আমরা বিজয় লাভ করেছি। দেশের স্বাধীনতা অর্জন করেছি। এখন এসো, আমাদের এই স্বপ্নের দেশটিকে সোনার দেশে পরিণত করার জন্য সকলেই আত্মনিয়োগ করি। আমরা দেশের উপযুক্ত নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠি।
এই ডিসেম্বরেই এবার এলো সিরাতের মাস-রবিউল আউয়াল। রবিউল আউয়াল মানেই তো জানো যে, রাসূল সা:-এর জন্ম এবং ওফাতের মাস। রাসূল সা:- এর প্রতি আমাদের ভালোবাসা অনেক গভীর। সবাইকে রাসূল সা: দারুণ ভালোবাসতেন। সেই ভালোবাসার কোনো তুলনাই হয় না। বিশেষ করে ছোটদেরকে তিনি অত্যন্ত ভালোবাসতেন। তাদের কোনো কষ্টই তিনি সইতে পারতেন না। ফলে আমাদের উচিত সিরাতের মাসে রাসূল সা:কে নিয়ে বেশি বেশি আলোচনা করা, তাঁর জীবনী পাঠ করা এবং তাঁর শিক্ষায় আমাদের জীবনকে আলোকিত করা।
আমরা যেন রাসূল সা:-এর শিক্ষায় আমাদের জীবনকে আলোকিত করতে পারি এবং সফলতা অর্জন করতে পারি সেই প্রচেষ্টা-ই চালাতে হবে। এসো আমরা রাসূল সা:-এর শিক্ষায় নিজেদেরকে প্রকৃত অর্থে যোগ্য করে গড়ে তুলি।
আজ এই পর্যন্তই!
আল্লাহ হাফিজ। হ

SHARE

Leave a Reply