Home হাসির বাকসো হাসির বাকসো

হাসির বাকসো

পিলু ও দাদুর মধ্যে কথা হচ্ছে-
পিলু : দাদু জানো, একটি গবেষণায় জানা গেছে টেলিভিশন এক সময় পত্রিকার স্থান দখল করে নেবে।
দাদু : অসম্ভব! ওসব গবেষণার কথা বিশ্বাস করবি না। টেলিভিশন দিয়ে তো আর বাতাস খাওয়া যায় না।
মো: মনির হোসাইন
বাংলাবাজার, সোনাইমুড়ী, নোয়াখালী

ডাক্তার ও রোগীর মধ্যে কথোপকথন-
রনি : আমার একটা সমস্যা হচ্ছে।
ডাক্তার : কী..?
রনি: যখন যার সাথে কথা বলি তাকে দেখতে পাই না।
ডাক্তার : কখন এরকম হয়..?
রনি: যখন ফোনে কথা বলি।
আমানুল্লাহ আমান
বাসুদেবপুর, গোদাগাড়ী, রাজশাহী

কাঁচাবাজারে গিয়ে দেখি দোকানদার পটোলে পানি ছিটাচ্ছে। আমি কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে সেই পানি ছিটানো দেখলাম। তারপর দোকানদার জিজ্ঞেস করলো কী লাগবে ভাই, বললাম পটোলের জ্ঞান ফিরলে আমাকে এক কেজি পটোল দিয়েন।
আবু ইসহাক, নরসিংদী

বল্টু : ভাই ডেটল সাবান আছে?
দোকানদার : হ্যাঁ আছে।
বল্টু : ভালোটা কিন্তু?
দোকানদার : হ্যাঁ আছে।
বল্টু : সব থেকে ভালোটা তো?
দোকানদার : হ্যাঁরে বাবা হ্যাঁ!
বল্টু : ওহ, তাইলে ওই সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে এক কেজি আটা দিন তো!
জুবায়ের আহমদ
সাভার, ঢাকা
খরগোশ টিকটিকিকে দেখে জিজ্ঞেস করল-
খরগোশ : এই তুই কে?
টিকটিকি: আমি ডাইনোসর।
খরগোশ: ডাইনোসর তো অনেক আগেই বিলুপ্ত হয়ে গেছে। তুই কোথায় থেকে এলি?
টিকটিকি: ভুল কথা। অসুখে ভুগে আজ আমাদের এই অবস্থা।
নাসির আহমদ, জুরাইন, ঢাকা

সেদিন পানাপুকুরের পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় এক ভদ্রলোক দেখলেন পানাপুকুরের সামনে দাঁড়িয়ে এক পাগল পাঁচ…পাঁচ…পাঁচ বলে চিৎকার করছে। লোকটি কিছুটা কৌতূহল নিয়েই পাগলকে জিজ্ঞাসা করল-
– এই কী হয়েছে? এত চিৎকার চেঁচামেচি করছ কেন?
Ñ একটু এদিকে আসুন, বলছি।
ভদ্রলোক সেখানে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পাগলটি ভদ্রলোককে ধাক্কা দিয়ে পানিতে ফেলে দিল। এরপর সে চিৎকার করতে লাগল ছয়…ছয়…ছয়।
এস.এম আবু তালহা
রামপাল, বাগেরহাট

ক্লাসে দুই বন্ধুর মাঝে কথা হচ্ছে-
১ম জন : এই রাফসান অ.আ কয়টি বলতো?
২য় জন : কেন? এটাতো সবাই জানে।
১ম জন : কিন্তু তুই কি জানিস?
২য় জন : অবশ্যই! অ.আ এগারোটি।
১ম জন : হা হা হা, হয়নি।
২য় জন : হয়নি কেন?
১ম জন : তুই কি বলেছিস অ.আ দুই আর স্বরবর্ণ ১১টি।
নাঈমুল ইসলাম জিহাদ
শিমুলতলা, লক্ষ্মীপুর

ভাই-বোনের মাঝে কথোপকথন-
ভাই : আপু তোমাকে সে কবে বলেছি আমাকে ভাত দিতে?
বোন : তোকে না আমি টাকা দিয়েছি ডিম আনতে, ডিম আনিস নি কেন?
ভাই : আপু ডিম এনেছি তো।
বোন : কোথায়?
ভাই : আপু আজকে রাসেল স্যার গণিত পরীক্ষার খাতায় দুইটা দিয়েছেন। ওই দুইটা ডিম নিয়ে এসেছি। এই নাও ভাজি কর। অনেক মজা হবে।
মু. আবদুল কাদের
সাতসতী, ফেনী

দুই ছাত্রীর মধ্যে কথোপকথন-
১ম ছাত্রী : যদি একটি মেয়ে ১০ মিনিটে ১টি মালা গাঁথতে পারে তাহলে ঐ সময়ে ৫টি মেয়ে কয়টি মালা গাঁথতে পারবে?
২য় ছাত্রী : একটাও না।
১ম ছাত্রী : কেন?
২য় ছাত্রী : কারণ পাঁচটি মেয়ে একত্র হলেই গল্প শুরু করবে, আর তাদের গল্প করতেই দশ মিনিট চলে যাবে।
মু. আবু বকর সিদ্দিক
লাকসাম, কুমিল্লা

মন্টু ও বল্টুর মধ্যে কথোপকথনÑ
মন্টু : ঐ কী করস?
বল্টু : মোবাইলে এই বাচ্চার কান্না রেকর্ড করছি।
মন্টু : কিন্তু কেন?
বল্টু : ও যখন বড় হবে তখন জিজ্ঞেস করবো কাঁদছিলে ক্যান…?
কাওছার আহমদ
বড়লেখা, মৌলভীবাজার

একজন পথচারী রাস্তায় একটি ১০০ টাকার নোট কুড়িয়ে পেল…
পথচারী : এখানে একটা ১০০ টাকার নোট পাওয়া গেছে। এটা কার?
প্লাবন : আঙ্কেল টাকাটা আমার…
পথচারী : বললেই হলো! কার না কার টাকা আমি প্রমাণ ছাড়া দিয়ে দিব ভেবেছ? আগে প্রমাণ দাও যে টাকাটা তোমার।
প্লাবন : কী প্রমাণ লাগবে?
পথচারী : আচ্ছা বলতো নোটটাতে ১ এর পর কয়টা শূন্য আছে?
হোসাইন মোহাম্মদ রিয়াজ
সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম

SHARE

Leave a Reply