Home জানার আছে অনেক কিছু চীনের প্রাচীর কি চাঁদ থেকে দেখা যায়?

চীনের প্রাচীর কি চাঁদ থেকে দেখা যায়?

চীনের প্রাচীর (গ্রেট ওয়াল অব চায়না) সম্পর্কে কে না জানে? এটি পৃথিবীর সবচাইতে জনবহুল দেশ চিনে অবস্থিত। এটি পৃথিবীর সপ্তাশ্চার্যগুলোর মধ্যে একটি। পৃথিবীর এই আশ্চর্য ও দীর্ঘতম প্রাচীর এর দৈর্ঘ্য প্রায় ২৬৯৫ কিলোমিটার এবং উচ্চতা ৪.৫৭ থেকে ৯.২ মিটার বা প্রায় ১৫ থেকে ৩০ ফুট ও চওড়ায় প্রায় ৯.৭৫ মিটার বা ৩২ ফুট। কথিত আছে চিনের প্রাচীরের উপর দিয়ে একসাথে ১২ জোড়া ঘোড়া একসাথে চলতে পারতো।
প্রাচীরের ইতিহাস : খ্রিস্টপূর্ব ৫ম শতক থেকে খ্রিস্টীয় ১৬শ শতক পর্যন্ত সময়ে চীনের উত্তর সীমান্ত রক্ষা করার জন্য প্রাচীর তৈরি শুরু করা হয়। ২২১ খ্রিস্টপূর্বাব্দে শুরু হওয়া কাজ শেষ হতে সময় লেগেছিল প্রায় ১৫ বছর। যা ইট আর পাথর দিয়ে তৈরি করা হয়। এ সময় প্রায় একইরকম অনেকগুলো প্রাচীর তৈরি করা হয়েছিল, তবে খ্রিস্টপূর্বাব্দ ২২০ থেকে ২০০ খ্রিস্টপূর্বাব্দের মধ্যবর্তী সময়ে চীনের প্রথম সম্রাট প্রন শি হুয়াঙের অধীনে নির্মিত প্রাচীরটিই সবচেয়ে বিখ্যাত।
এটি বর্তমান প্রাচীরের একেবারে উত্তরে অবস্থিত এবং এর খুব সামান্যই অবশিষ্ট আছে। বর্তমান প্রাচীরটি মিং রাজবংশের শাসনামলে নির্মিত হয়। এটা শ্রেষ্ট আকর্ষনীয় জিনিসগুলোর মধ্যে একটি যা অত্যন্ত চমৎকৃত এবং বিস্ময়কর। আর যার কারনেই এটি ঐতিহাসিকভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এটিই একমাত্র বস্তু যা চাঁদ থেকে দেখা যায়।

SHARE

Leave a Reply