Home কুরআন ও হাদিসের আলো কুরআনের আলো কুরআনের আলো

কুরআনের আলো

‘কি রে মোল্লা! কই যাস?’ এমন অদ্ভুত ডাকে হঠাৎ থমকে দাঁড়ায় তানভীর। পেছনে তাকিয়ে দেখে, তারই সহপাঠী আনিস ও তার কয়েকজন বন্ধু খিলখিল করে হাসছে। তাদের অঙ্গভঙ্গি তানভীরকে মর্মাহত করে। অবশ্য এ নতুন কিছু নয়। প্রায় সময়ই তাকে সহপাঠীদের দ্বারা এ ধরনের ব্যঙ্গাত্মক আক্রমণের শিকার হতে হয়। কারণ একটাই।
তানভীর স্কুলে পড়াশোনা করলেও ধর্মের প্রতি তার রয়েছে অগাধ বিশ্বাস ও গভীর আগ্রহ। সে ইচ্ছাকৃতভাবে কখনোই সালাত ত্যাগ করে না। অযথা আড্ডা ও অন্যায় কাজে সময় নষ্ট করে না। কিন্তু তার সহপাঠীদের কেউ কেউ এমন কথাও বলে, আরে- এ বয়সে এত ধর্ম-কর্ম করলে বুড়ো বয়সে কী করবি? অনেকে আবার উপদেশের সুরে বলে, ‘দেখ্! এত মোল্লাগিরি করলে তুই কিন্তু নানা ধরনের সন্দেহে পড়ে যাবি। এ জন্য নিজেকে যতটা আধুনিক হিসেবে উপস্থাপন করা যায়, ততই নিরাপদ। তা ছাড়া, ধর্মের মধ্যে ডুবে থাকলে জীবনে মজা করা যায় না।’
তানভীর জানে, সহপাঠীদের কথাবার্তা সবই ভুল। সে এসবের যথাসম্ভব প্রতিবাদ ও সঠিক বিষয়টা তুলে ধরার চেষ্টাও করে। তবে আনিস ও তার বন্ধুদের বিদ্রুপাত্মক আচরণ সে কিছুতেই ভুলতে পারছে না। বিষয়টা সে তার এক বড় ভাইয়াকে জানাল এবং তার সহযোগিতা চাইল। ভাইয়া বললেন, তোমাকে কুরআন থেকে কিছু আয়াত তেলাওয়াত করে শোনাচ্ছি। দেখ, তোমার সাথে মিলে যায় কি-না।
আল্লাহ বলেন, “যারা অপরাধী, তারা মুমিনদেরকে নিয়ে হাসাহাসি করতো। তারা যখন তাদের পাশ দিয়ে গমন করতো, তখন পরস্পর চোখ টিপে ইশারা করতো। যখন তারা নিজ পরিবার-পরিজনের নিকট ফিরতো, তখনও উপহাসরত অবস্থায়ই ফিরতো। আর যখন মুমিনদেরকে দেখতে পেত, তখন বলত- এরা তো পথভ্রষ্ট! অথচ এই অপরাধীদেরকে মুমিনদের অভিভাবকরূপে পাঠানো হয়নি।” (সূরা মুতাফফিফিন : ২৯-৩৩)
তানভীর আশ্চর্য হয়ে বলল, আয়াতগুলো কেন যেন আমার সাথে হুবহু মিলে যাচ্ছে। শুধু আমার সাথে নয়, যারা ইসলামের কথা বলে তারাও তো এরকম পরিস্থিতিরই শিকার। ভাইয়া বললেন, তা হলে শোনো, এরপর আল্লাহ কী বলেছেন- “আজ (আখিরাতের দিন) যারা মুমিন, তারা অবিশ্বাসীদের নিয়ে হাসাহাসি করছে। আর তারা সুসজ্জিত আসনে বসে ওদের পরিণতি অবলোকন করছে। কি, অবিশ্বাসীরা তাদের কৃতকর্মের প্রতিফল পেয়েছে তো?” (সূরা মুতাফফিফিন : ৩৪-৩৬)
আখিরাতের অবস্থা তাহলে সম্পূর্ণ বিপরীত! ভাইয়া বললেন, তুমি তোমার আদর্শের ওপর অবিচল থাকো। তবে, তোমার সহপাঠী বন্ধুদের সত্য পথের দাওয়াত দিতেও ভুলো না যেন!
– বিলাল হোসাইন নূরী

SHARE

2 COMMENTS

Leave a Reply to Muhammad Rashed Cancel reply