Home ফিচার আগামীর তথ্যপ্রযুক্তি

আগামীর তথ্যপ্রযুক্তি

কিলার রোবট

Robotরোবটের সাথে কম বেশি সবাই পরিচিত। মানুষের বিকল্প হিসাবে আগামী দিনে ব্যবহৃত হবে রোবট। জনপ্রিয় হলিউডি সিনেমা ‘টার্মিনেটরের’ যারা দেখেছো তারা কিছুটা ধারণা করতে পারছো কিলার রোবট সম্পর্কে। মূলত মানুষকে ধ্বংস করার জন্যই তৈরি করা হচ্ছে এই রোবট। অবাক করার ব্যাপার হলো রোবটটি মানুষ হত্যা করবে কিন্তু কিলার রোবট তৈরি হচ্ছে মানুষেরই হাতে। এ জন্য প্রথমবারের মতো ‘কিলার রোবট’ ইস্যুতে অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় বসছে জাতিসংঘ। সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ওই আলোচনায় ‘কিলার রোবটের’ কার্যক্ষমতা, প্রয়োজনীয়তা এবং সম্ভাব্য ঝুঁকি নিয়ে আলোচনা করেছেন শীর্ষ রোবটিক্স বিশেষজ্ঞরা। ‘সার্টেইন কনভেনশনাল উইপনস’ বিষয়ক জাতিসংঘের সম্মেলন চলাকালীন ‘কিলার রোবট’ ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ‘কিলার রোবট’ হচ্ছে এমন একটি উইপন সিস্টেম যা কিনা সরাসরি কারও নিয়ন্ত্রণ ছাড়াই নিজে থেকে লক্ষ্য স্থির করে হত্যা করতে পারে। প্রযুক্তির ‘লাগাম ছাড়া’ অগ্রগতিতে ড্রোনের পর কিলার রোবটগুলোই আত্মপ্রকাশ করতে পারে সবচেয়ে বড় মারণাস্ত্র হুমকি হিসেবে। এছাড়াও অস্ত্র নির্মাণ শিল্পের সঙ্গে জড়িত অনেকেই মনে করেন বর্তমান যুদ্ধ আইন মেনেই ‘কিলার রোবট’ ব্যবহার করা সম্ভব। অন্যদিকে কিলার রোবট বিরোধীদের মতে মানবতার জন্য ইতিহাসের সবচেয়ে বড় হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে এই প্রযুক্তি। এজন্য মাঠপর্যায়ে ব্যবহার শূরু হওয়ার আগেই এই প্রযুক্তি নিষিদ্ধ করার দাবি তাদের।
পুলিশের ইউনিফর্মে ক্যামেরা!
ক্যামেরা বিভিন্ন ধরনের ব্যবহাওে সাথে আমরা সবাই পরিচিত। তবে সম্প্রতি লন্ডন মেট্রোপলিটান পুলিশের ইউনিফর্মে যুক্ত করা হয়েছে ছোট আকৃতির ক্যামেরা। এসব ক্যামেরায় ধারণকৃত তথ্য বা ফুটেজ সরাসরি আপলোড হয়ে যাবে এভিডেন্স ডটকম নামের একটি সাইটে, যেখান থেকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দেখে নিতে পারবেন সব তথ্য প্রমাণ। ঘটনা ঘটার সময়েই তাৎক্ষনিক প্রমাণ সংগ্রহের কাজে ব্যবহার করা যায়, এমন প্রযুক্তির নিয়ে এক বছরের এক পাইলট প্রোগ্রামের অংশ হিসেবে এই প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।
এর মাধ্যমে অভিযানের সময় পুলিশ অফিসার এবং সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের আচরণের ওপরও নজরদারি করতে পারবেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। টাসের ইন্টারন্যাশনালের তৈরি অ্যাক্সন বডি ক্যামেরা ব্যবহার করছে লন্ডন পুলিশ।। একটানা ১২ ঘণ্টা ভিডিও করতে পারবে এসব ক্যামেরা।
এই ক্যামেরাগুলো ইউনিফর্মেই লুকানো থাকবে তা নয়। শার্টের কলার, হ্যাট বা সানগাসের সঙ্গে জুড়ে দিয়ে ব্যবহার করা যাবে ক্যামেরাগুলো। এর জন্য প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ জোগাবে পকেট সাইজ ব্যাটারি প্যাক। আর ওই ক্যামেরার ভিডিওগুলো ব্যবহারকারীদের কেউ মুছে দিতে বা পরিবর্তন করতে পারবে না বলে দাবি করেছে টাসের ইন্টারন্যাশনাল। প্রমান হিসেবে ভিডিওগুলো চমৎকার। এছাড়া অফিসাররা যদি ভুলেও কোনো অনৈতিক কাজ করে তবে তা সঙ্গে সঙ্গেই ধরা পরে যাবে ধারনকৃত ভিডিওতে। এই প্রযুক্তির বদৌলতে পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা যে তাদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করছেন তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে অভিযুক্তদের মিথ্যে অভিযোগের সমাধান করা অনেক সহজ হয়ে যাবে।

স্মার্ট ছাতা
নেদারল্যান্ডসের ডেল্ফট ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজির গবেষক রলফ হাট তৈরি করেছেন স্মার্ট আমব্রেলা। তার দাবী এটি ব্যবহার করে বৃষ্টি সম্পর্কিত তথ্য সরবরাহ করা যাবে। ছাতার ক্যানভাসের নিচে ব্যবহার করা হয়েছে পেইজো সেন্সর। এতে ছাতায় বৃষ্টির ফোটা পড়লে যে ভাইব্রেশন হয় তা পরিমাপ করা যাবে। এ তথ্য বুটুথের মাধ্যমে ফোন থেকে পাঠিয়ে দেবে কম্পিউটারে কিংবা ক্লাউডভিত্তিক ডেটা স্টোরে। এতে শহরের বিভিন্ন প্রান্তের বৃষ্টিপাতের খবর জানা যাবে। অতিবৃষ্টির ফলে বন্যার আশঙ্কা থাকলেও আগাম সতর্কতা পাওয়া যাবে।
এ সম্পর্কে গবেষক ড. হাট জানান, আবহাওয়ার তথ্য জানাতে আমাদের রয়েছে রেডার ও স্যাটেলাইট। কিন্তু বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি কতটুকু হয় তা পরিমাপ করা ব্যয়বহুল। এজন্য ভবিষ্যতে এ প্রযুক্তি নিয়ে আসার কথা জানিয়েছেন হাট। এতে বৃষ্টির সময় ছাতা খুললেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে তথ্য চলে যাবে কম্পিউটারে। এভাবে হাজার হাজার মানুষ যখন এ ছাতা ব্যবহার করবে তখন শহরের বৃষ্টিপাত সম্পর্কে তথ্য একত্রিত হবে। ফলে বিজ্ঞানসম্মত তথ্য পাওয়া যাবে।
মডিউলার ফোন
ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ কম্পিউটারে বিভিন্ন যন্ত্রাংশ লাগিয়ে আপডেট করা যায়। এটা তোমরা সবাই জানো। কিন্তু স্মার্টফোনেও বিভিন্ন যন্ত্রাংশ লাগিয়ে আপডেট করা যাবে এমনটি কি কখনো শুনেছ? গুগলের তৈরি বহুপ্রতীক্ষিত মডিউলার স্মার্টফোন বাজারে আসছে ২০১৫ সালে। ‘স্মার্টফোন’ বললেই যে ছবিটা আমাদের চোখে ভাসে, মাথার ভেতর চলতে থাকে যে র‌্যাম, রম আর পিক্সেলের হিসেব তার সবকিছুই পাল্টে দিতে পারে গুগলের প্রজেক্ট আরার মডুলার স্মার্টফোন।
মডিউলার স্মার্টফোন এর বিশেষত্ব হলো ইচ্ছেমতো এর হার্ডওয়্যার বদলে নেওয়া যাবে। স্মার্টফোনটির হার্ডওয়্যারের গঠনটাই এমন হবে যে, ক্রেতা নিজেই পুরনো ব্যাটারি বা ক্যামেরা খুলে নিজের পছন্দমতো নতুন হার্ডওয়্যার লাগিয়ে নিতে পারবেন। সময়ের সঙ্গে ‘তাল’ মেলাতে অনেক ক্রেতাই বছর বছর পাল্টাচ্ছেন স্মার্টফোন। এই দৃশ্যপট হয়ত অনেকটাই পাল্টে দিতে পারে মডিউলার স্মার্টফোনগুলো। পুরনো স্মার্টফোন বিক্রি করে দিয়ে আবারও বেশি খরচ করে নতুন স্মার্টফোন কেনার ঝক্কি পোহাতে হবে না, প্রয়োজন আর পছন্দমতো হার্ডওয়্যার দিয়ে পুরনো স্মার্টফোনকে ‘কাস্টোমাইজ’ করে নিতে পারবেন ক্রেতারা।
মডেলভেদে স্মার্টফোনগুলোর দাম হতে পারে ৫০ ডলার থেকে ৫০০ ডলার পর্যন্ত। তিনটি ভিন্ন আকারের মডেল দিয়ে বাজারে যাত্রা শুরু করবে গুগলের মডিউলার ফোন।
টাইপিং ছাড়াই মেসেজিং

তোমরা সবাই জানো মোবাইলফোনে এসএমএস লিখতে হলে আগে নির্দিষ্ট শব্দ টাইপ করতে হয়, তারপর কাংক্সিক্ষত ব্যাক্তিকে পাঠাতে হয়। তবে স্মার্টওয়াচ প্রযুক্তিতে টাইপিং ছাড়াই টেক্সট মেসেজ করার ফিচার ‘টোক টক’ যোগ করেছে প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কোয়ালকম। সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘নুয়ান্স’ এর ‘ভয়েস টু টেক’ প্রযুক্তি ব্যবহার করে তৈরি ‘টক টোক’-র ব্যবহারকারীরা টাইপিংয়ের বদলে স্মার্টওয়াচটিতে টেক্সট মেসেজ লিখতে পাঠাতে পারবেন নিজের কণ্ঠ দিয়েই।
শুরুতে কেবল টেক্সট মেসেজের ক্ষেত্রেই নতুন ফিচারটি ব্যবহার করা যাবে। ব্যবহারকারী সর্বোচ্চ ৯ সেকেন্ড কথা বলতে পারবেন যা স্মার্টওয়াচটি রেকর্ড করে নেবে টেক্সট মেসেজ হিসেবে। টোক টক ফিচারটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ভয়েস রিকগনিশন আর স্পিচ প্রসেসিংজগতের শীর্ষ প্রতিষ্ঠান নুয়ান্সের ভয়েস টু টেক্সট প্রযুক্তি। এর বদৌলতে কেবল কণ্ঠস্বর দিয়েই স্মার্টওয়াচ থেকে টেক্সট মেসেজ লেখার এই অভিনব ফিচার পাবেন ব্যবহারকারীরা। অ্যাপলের জনপ্রিয় অ্যাপ সিরি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে নুয়ান্সের তৈরি ভয়েস রিকগনিশন প্রযুক্তি।

SHARE

Leave a Reply