Home নিয়মিত খোলা-ডাক খোলা ডাক জানুয়ারী’ ১৪

খোলা ডাক জানুয়ারী’ ১৪

Khola-Dakআমার কষ্ট
আমার এক বন্ধুকে একদিন দেখতে পাই কিশোরকণ্ঠ নামে কী যেন পড়ছে। তার কাছে থেকে কিশোরকণ্ঠটা নিয়ে পড়ি। যতই পড়ি ততই ভালো লাগে। তাই সেপ্টেম্বর থেকে আমি কিশোরকণ্ঠ কেনা শুরু করি। আসলেই নতুন কিশোরকণ্ঠটি জ্ঞানের ভাণ্ডার। আগে এটির খবর পাইনি বলে আমি খুবই দুঃখবোধ করছি।
আ: সবুর খান
হাসনাবাদ, রায়পুরা, নরসিংদী

চলার সাথী
জীবনে চলার পথে একজন কর্তব্যরত সাথী প্রয়োজন যে আমাকে ভাল পথে পরিচালিত করবে এবং মন্দ পথ থেকে দূরে রাখবে। আমার জীবনের সাথী হিসেবে কিশোরকণ্ঠকে বেছে নিয়েছি, যা আমার জীবনকে সুন্দর করবে। বিভিন্ন জ্ঞানের তৃষ্ণা মিটিয়ে জীবনকে দেবে এক উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ। এই জ্ঞান বিতরণের রশ্মিকে আমি সবসময় আঁকড়ে রাখবো। তাই কিশোরকণ্ঠ কৃর্তপক্ষকে জানাচ্ছি অভিনন্দন এমন একটি সংখ্যা উপহার দেয়ার জন্য।
রুবিনা পারভীন
জিয়ালা, সাতক্ষীরা

জীবনের জানালা
জানালা এমন একটি মাধ্যম যার মধ্য দিয়ে ঘরে সূর্যের আলো প্রবেশ করে। তেমনি কিশোরকণ্ঠ তরুণদের কাছে পৌঁছে দেয় জীবনচলার পবিত্র আলো, দেখায় সত্য ও সুন্দরের পথ। এভাবেই কিশোরকণ্ঠ হয়ে উঠেছে লাখো তরুণের মনের ভাষা।
তাহজির তানসীম
রাজপাড়া, রাজশাহী

বন্ধুর কাছে প্রত্যাশা
কিশোরকণ্ঠ আমার এক নতুন বন্ধু। নভেম্বর মাসের সংখ্যাটি এতই আনন্দদায়ক ছিল যা মুখে প্রকাশ করা অসম্ভব। কুরআনের আলো ও হাদিসের আলো মনে নাড়া দিয়ে যায়। এ ছাড়া গল্প, কবিতা, উপন্যাস, হাসির বাকসো খুবই ভালো লেগেছে। কিশোরকণ্ঠের কাছে আমার প্রত্যাশাÑ আগামীতে প্রতিটি সংখ্যাই এরকম মনোমুগ্ধকর হবে।
জুবায়ের মাহমুদ প্রতিম
চৌড়হাঁস, ফুলতলা, কুষ্টিয়া

অতুলনীয়
আমি গত সাত মাস ধরে কিশোরকণ্ঠ পড়ে আসছি। আমি বুঝতে পেরেছি এই কিশোরকণ্ঠ জ্ঞানের পিপাসা মেটাতে পারে। কিশোরকণ্ঠের মধ্যে কুরআনের আলো, হাদিসের আলো, কিশোর জিজ্ঞাসা আমার কাছে বেশি পছন্দ। তা ছাড়া গল্প, ছড়া, কবিতা, আবিষ্কারক জ্ঞান, হাসির বাকসো, বলতে পারো ইত্যাদি আমার মনকে আকৃষ্ট করে।
সুমন আলী
শ্যামপুর, শিবগঞ্জ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

জ্ঞান বিকাশে কিশোরকণ্ঠ
আমি গত মে মাসে কিশোরকণ্ঠ পড়া শুরু করেছি। এখন আমি নিজে পড়ি এবং অন্যকে পাঠ করতে দেই। আমি কিশোরকন্ঠ পড়ে অনেক কিছু সম্পর্কে জানতে পেরেছি।
কিশোরকণ্ঠ পত্রিকা পাঠের মধ্য দিয়ে একজন সৎ ব্যক্তি হওয়ার সন্ধান পাওয়া যায়। এই জন্য আমি দৈনিক পড়ার রুটিনের সাথে দৈনিক কিশোরকণ্ঠ পড়ার স্থান করে নিয়েছি। কিশোরকণ্ঠের প্রত্যেকটি লেখাই অসাধারণ মনে হয় আমার কাছে।
মো: ওমর ফারুক
শারাফতি উচ্চবিদ্যালয়, বরুড়া, কুমিল্লা

আমাদের বন্ধু
আমরা বন্ধুরা যখন কিশোরকণ্ঠ হাতে পাই তখনি সকলে মিলে বসে যাই যার যার বাড়িতে কিশোরকণ্ঠ পড়ার জন্য। যখন আমাদের সকলের পড়া শেষ হবে তখনি আমরা সকলেই একসঙ্গে বসে পরস্পরের মাঝে আলোচনা করে থাকি। কে কী রকম পড়লাম তাই নিয়ে।
কিশোরকণ্ঠ হাতে আসার পর খাবার কথা ভুলেই যেতাম। শুধু আমরা মা-বাবার ভয়ে ক্লাসের পড়া এবং স্কুলের ছুটির পরপরই বসে পড়ি কিশোরকণ্ঠ নিয়ে। যেহেতু প্রায় সবসময় কিশোরকণ্ঠ আমাদের সাথেই থাকে আমরা সকলের নাম দিয়েছি আমাদের বন্ধু হিসেবে।
মাসদে মাহমুদ আহসান
পীরগাছা, রংপুর

জ্ঞানসমৃদ্ধ পত্রিকা
আমি হেমন্ত ঋতুর বৈশিষ্ট্যাবলির ব্যাপারে একেবারেই অজ্ঞ ছিলাম। হেমন্তের সোনালি রোদ্দুর রচনাটি পড়ার পর হেমন্ত সম্বন্ধে একটা ধারণা পেয়েছি। গত বছরের ন্যায় এবারো যদি অদ্ভুত মাছবিষয়ক কোন প্রচ্ছদ রচনা পেতাম তাহলে খুবই উপকৃত হতাম। ভ্রমণ কাহিনী ক্যাঙ্গারুর দেশ কোয়ালার দেশ ও ফিচার আকাশছোঁয়ার পণ পড়েও অনেক অজানা বিষয়ে জ্ঞাত হয়েছি। সে জন্য কিশোরকণ্ঠকে কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষা জানা নেই। নতুন কিশোরকণ্ঠ নভেম্বর সংখ্যাটি অনেক জ্ঞানসমৃদ্ধ ও ফজিলতমণ্ডিত।
আবীর রায়হান, মুহাম্মদপুর, ঢাকা

যেন হীরার টুকরো
নভেম্বর ২০১৩ সংখ্যাটির প্রত্যেকটি বিভাগই শিক্ষণীয় এবং বেশ আনন্দদায়ক। সবচেয়ে বেশি আকৃষ্ট হয়েছি প্রচ্ছদ এবং প্রচ্ছদ রচনার প্রতি। প্রচ্ছদ দেখে ‘হেমন্তের সোনালি রোদ্দুর’ এর কথা মনে পড়তেই মনটা প্রশান্তিতে ভরে উঠল। আসলে কিশোরকণ্ঠ হচ্ছে হীরের টুকরোর মতো, পেলে ছাড়তে ইচ্ছে করে না। সকল পাঠক বন্ধুকে বলছি, তোমরা কিশোরকণ্ঠ পাঠ করে নিজের জীবনকে হীরের মতো পরিণত করতে পারবে বলে আমি আশাবাদী।
মো: শরফুদ্দীন আহম্মেদ সৌরভ কুমিরা, সীতাকুণ্ড, চট্টগ্রাম

নিয়মিত পেতে চাই
আমি কিশোরকণ্ঠের একজন নিয়মিত পাঠক। কিশোরকণ্ঠ একজন কিশোরের প্রকৃত বন্ধু। কারণ কিশোরকণ্ঠ একজন কিশোরকে সৎ, দক্ষ এবং যোগ্য সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে। আমার একজন প্রকৃত বন্ধু হচ্ছে কিশোরকণ্ঠ। তাইতো আমি বারো মাসেই তাকে পেতে এবং পড়তে চাই।
শহিদুল ইসলাম
এনায়েতপুর, সিরাজগঞ্জ

একটু তাড়াতাড়ি
প্রায় সময়ই প্রতিযোগিতাপূর্ণ বিভাগগুলোতে অংশ নিতে পারছি না। কারণ একটাইÑ সঠিক সময়ে কিশোরকণ্ঠ হাতে না পাওয়া। সবুরে নাকি মেওয়া ফলে, তাই বলে কি এত দেরি? জানি, আমি কিশোরকণ্ঠ ছাড়া থাকতে পারবো না। আর এ জন্যই প্রার্থনা, সঠিক সময়ে কিশোরকণ্ঠ হাতে পেয়ে যেন আমার আগ্রহটাকে ধরে রাখতে পারি।
মাহফুজুর রহমান খান (সাকিব)
হাটখোলা রোড, নেত্রকোনা

SHARE

1 COMMENT

  1. HATE NIE PORAR ANONDO
    Age kishorkantha hate nie portam.ekn online porte hoi.ager moto pore moja paina,kishorkantha hate nie porar anondo onek beshi.online kishorkanth e shobdo dhadha paina kno?

Leave a Reply