Home কুরআন ও হাদিসের আলো খালেস দিলের তাওবা কবুল হয়

খালেস দিলের তাওবা কবুল হয়

বিস্মিল্লাহির রাহমানির রাহীম

“হে ঈমানদার লোকেরা, তোমরা খালেস দিলে তাওবা করে আল্লাহর দিকে ফিরে এসো। আশা করা যায়, আল্লাহ তোমাদের ছোটখাটো ত্রুটি-বিচ্যুতি মার্জনা করে দেবেন এবং সেই জান্নাতে স্থান দেবেন, যার পাদদেশ দিয়ে ঝরনাধারা প্রবাহিত।”
(সূরা আত্-তাহরীম, আয়াত ৮)

সুপ্রিয় বন্ধুরা,
প্রত্যেক মুমিন বান্দাহর ঈমানের দাবি হলো ভালো কাজ করা, সৎ পথে চলা, হালাল উপার্জন করা। কিন্তু কেউ যদি অসতর্কতার কারণে মন্দ কাজ করে ফেলে, তার উচিত হবে মন্দ কাজ পরিহার করে সঠিক পথে ফিরে আসা। আর ত্রুটি-বিচ্যুতির জন্য অনুতাপ-অনুশোচনা করা। প্রকৃতপক্ষে কোনো অন্যায় করার পর অনুশোচনা করে সেই কাজের জন্য ক্ষমা চাওয়া এবং অন্যায় কাজ ছেড়ে দেয়াকেই তাওবা বলে।
মহান আল্লাহর ক্ষমা ছাড়া কি আমাদের কোনো উপায় আছে? এ কারণে আমাদের কৃতকর্মের জন্য তাঁর নিকট ক্ষমা চাইতে হবে। মাগফিরাত কামনা করতে হবে তাঁর দরবারে। রাসূলে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, পশ্চিম দিক থেকে সূর্য উদিত না হওয়া পর্যন্ত আল্লাহতায়ালা দিনের অপরাধীকে ক্ষমা করার জন্য রাতে এবং রাতের অপরাধীকে ক্ষমা করার জন্য দিনে ক্ষমার হাত প্রসারিত করে রাখেন। (সহীহ মুসলিম)

প্রিয় বন্ধুরা,
এসো আমাদের প্রতিদিনের ত্রুটি-বিচ্যুতির জন্য আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই এবং বেশি বেশি তাওবা করি। আর ভবিষ্যতে খারাপ কাজটি না করার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হই।

SHARE

Leave a Reply