Home নিয়মিত রহস্যভেদ রহস্যভেদ

রহস্যভেদ

রহস্যপ্রিয় বন্ধুরা, আস্সালামু আলাইকুম। বরাবরের ন্যায় এই সংখ্যায়ও ছোট্ট একটি রহস্যগল্প থাকছে তোমাদের জন্য। মাথা খাটিয়ে রহস্যটা বের করে পাঠিয়ে দিয়ে জিতে নাও আকর্ষণীয় পুরস্কার। উত্তরপত্রে মাসের নাম ও পূর্ণ ঠিকানা থাকতে হবে। খামের ওপরে ‘রহস্যভেদ’ লিখতে ভুল করো না। -বিভাগীয় পরিচালক

আজ সকালেই দাদু এসেছেন। থাকবেন বেশ কয়েকদিন। আর দাদু আসা মানে তো ছেলেমেয়েদের বিরাট আনন্দের ব্যাপার। গল্পের আসর চলে অনেক রাত পর্যন্ত। তবে এই গল্পের আসরের বিশেষত্ব হচ্ছে দাদু শুধু গল্প বলেই ক্ষান্ত হন না, ওদেরকে বিভিন্ন প্রশ্নও করেন। এতে কখনও কখনও ছেলেমেয়েরা যে বেকায়দায় পড়ে না তা না, তবে দাদুই সেখান থেকে ওদের টেনে তোলেন।
দাদু মূলত বিভিন্ন শিক্ষামূলক গল্প বলেন।
আজও গল্পের মাঝে দাদু হঠাৎ প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন, ‘এবার বলো পানিবাহিত কয়েকটি রোগের নাম।’
সবাই এ ওর মুখের দিকে তাকাতে লাগল। সবার মধ্যে টুটুলটা একটু বেশিই চটপটে। ও-ই প্রথমে মুখ খুুলল, ‘যেসব রোগ পানির মাধ্যমে ছড়ায় তাই পানিবাহিত রোগ। যেমন আমাশয়, ডায়রিয়া, ম্যালেরিয়া ইত্যাদি।’
দাদু বললেন, ‘বাহ্, ফাইন। এবার মুন্নি বলো, হাম রোগ ছড়ায় কোন্ জীবাণু?’
মুন্নি তড়বড় করে বলা শুরু করল, ‘দাদু জানো, আমার বান্ধবী তানিয়ার হাম হয়েছিল। এক সপ্তাহ স্কুলেও যায়নি ও। সারাক্ষণ খালি শুয়ে থাকত। আমি দেখতে গিয়েছিলাম।’
দাদু ওকে থামিয়ে দিয়ে বললেন, ‘কিন্তু আমার প্রশ্নটার উত্তর তো দিলে না দাদুভাই।’
‘এ তো সবাই জানে,’ ঠোঁট উল্টিয়ে বলল মুন্নি। ‘ভাইরাসের কারণে হাম রোগ হয়।’
‘ভেরি গুড। এবার আরও কয়েকটি ভাইরাসঘটিত রোগেরে নাম কে আগে বলবে?’
তুর্য হাত তুলল সবার আগে। দাদু বলতে বললে ও বলল, ‘ইনফ্লুয়েঞ্জা, হার্পিস, কলেরা, পোলিও, বসন্ত, জলাতঙ্ক ইত্যাদি।’
দাদু বললেন, ‘ও কে। তোমরা দেখছি অনেক কিছুই জানো। তো শোনো, স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য আমাদেরকে প্রতিদিন সুষম খাদ্য খেতে হয়। তোমরা তো জানোই দুধ আর ডিম হচ্ছে আদর্শ খাদ্য যাতে খাবারের সব উপাদানগুলোই আছে। খাদ্যের উপাদান কয়টি বলোতো?’
সবাই একসাথে বলল, ‘ছয়টি।’
‘গুড। এগুলো আমাদেরকে…’
হঠাৎ দাদুকে থামিয়ে দিল রুম্মন। বলল, ‘এক সেকেন্ড দাদুভাই। দুধ ও ডিম আদর্শ খাদ্য হলেও তাতে কিন্তু একটি জিনিস নেই। সেটা হলো…’
দাদুও রুম্মনকে থামিয়ে দিলেন। বললেন, ‘থাক থাক, আগেই বলে দিও না। দেখি বিষয়টা আর কে কে জানো তোমরা।’
কিন্তু অন্য কেউ তা বলতে পারল না।
অবশেষে দাদু বললেন, ‘তোমরা অনেক কিছু জানলেও কয়েকটা তথ্য ভুল দিয়েছ।’ তারপর সঠিক তথ্যগুলোও বলে দিলেন ওদেরকে।
বন্ধুরা, বলো তো ওরা কোন্ তথ্যগুলো ভুল বলেছিল? আর দুধ ও ডিমের বিষয়টাই বা কী?
মে ২০১২ সংখ্যার উত্তর : আলোর গতি শব্দের গতির চেয়ে বেশি। তাই আগে বিদ্যুৎ চমকাবে ও পরে বাজ পড়বে। কিন্তু হাসু মামা উল্টো বলাতে রাসেল মাহফুজ তার গল্প নিয়ে সন্দেহ পোষণ করল।
পুরস্কার বিজয়ী : নাজমা বেগম, গাছবাড়ী কামিল মাদরাসা, সিলেট।

SHARE

1 COMMENT

Leave a Reply to Nadim Abdullah Farhan Cancel reply